kalerkantho


চালক মুসলিম, তাই ট্যাক্সিতে চড়লেন না হিন্দু নেতা!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ এপ্রিল, ২০১৮ ১১:১৪



চালক মুসলিম, তাই ট্যাক্সিতে চড়লেন না হিন্দু নেতা!

ভারতের কট্টরপন্থী হিন্দু সংগঠন বিশ্ব হিন্দু পরিষদ-র এক নেতা ট্যাক্সি হেইলিং অ্যাপে গাড়ি বুক করেন। কিন্তু চালক মুসলিম হওয়ায় সেই ট্যাক্সি বুকিং বাতিল করেছেন তিনি। গত শনিবার এই ঘটনা ঘটেছে। 

জানা গেছে, ট্যাক্সি বুকিং এর পর ওই নেতা যখন জানতে পারেন চালক মুসলিম তখন সঙ্গে সঙ্গে সেটি বাতিল করে দেন। এখানেই শেষ নয়, তিনি সগর্বে এই কথা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে টুইট করে জানান। ইন্টারনেট দুনিয়ায় স্ক্রিনশট দিয়ে করা ওই টুইটটি ভাইরাল হয়ে যায়। অন্যদিকে, ওই টুইট নিয়ে ভারতজুড়ে তীব্র বিতর্ক শুরু হয়।

ওই নেতার নাম অভিষেক মিশ্র। গত ২০ এপ্রিল তিনি টুইটারে একটি স্ক্রিনশট দিয়ে জানান, ওলাতে ক্যাব বুক করার পর তিনি যখন দেখতে পান চালক একজন মুসলিম সঙ্গে সঙ্গে সেই বুকিং বাতিল করে দেন। 

টুইটে তিনি বলেন, আমার টাকা আমি কোনো জিহাদি মানুষকে দিতে চাই না। 

এদিকে, বিতর্কিত ওই টুইট নিয়ে এরই মধ্যে ভারতে তীব্র বিতর্ক শুরু হয়েছে। 'ওলা' নামের ওই অ্যাপটির কর্তৃপক্ষ বিবৃতি দিয়ে ওই গ্রাহকের আচরণের নিন্দা করেছে। অভিষেক মিশ্রকে ওলা থেকে পুরোপুরি নিষিদ্ধ করার দাবিও জানাচ্ছেন অনেকেই। কিন্তু এর পরেও বিশ্ব হিন্দু পরিষদের ওই নেতা নিজের আচরণের জন্য দুঃখিত নন।

অভিষেক মিশ্রের এই বিতর্কের আগে টুইটারে প্রায় ১৪ হাজার ফলোয়ার ছিল। এই সংখ্যা গত কয়েকদিনে আরো কয়েক হাজার বেড়ে গেছে। ভারতে বিজেপির বেশ কয়েকজন ক্যাবিনেট মন্ত্রীও টুইটারে তাকে নিয়মিত ফলো করেন। প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামন, পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান, সংস্কৃতি-মন্ত্রী মহেশ শর্মার মতো অনেকেই তার ফলোয়ার।

সূত্র: দ্য ইকোনমিক টাইমস



মন্তব্য