kalerkantho


অলিম্পিকে বিশ্বের সবচেয়ে কালো ভবন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৫:২৫



অলিম্পিকে বিশ্বের সবচেয়ে কালো ভবন

ছবি অনলাইন

দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে শীতকালীন অলিম্পিক। এ অলিম্পিকের কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে একটি ভবন- হুন্দাই প্যাভিলিয়ন, যাকে বলা হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে কালো ভবন।

ভবনটি কিভাবে এত কালো হলো? এ প্রসঙ্গে ভবনটির ব্রিটিশ স্থপতি আসিফ খান জানিয়েছেন, এতে ব্যবহৃত হয়েছে একটি যুগান্তকারী পদার্থ, যা ৯৯ শতাংশ আলো শোষণ করে নেয়। এ কারণে ভবনটিকে চোখ বন্ধ করেই বিশ্বের সবচেয়ে কালো ভবন বলা যায়।

আরো পড়ুন : অলিম্পিকের উদ্বোধনী আসরে ট্রাম্প-কিম!

পৃথিবীর সবচেয়ে কালো বস্তুর নাম ভ্যান্টাব্ল্যাক। আর এটি দিয়েই আবরণ দেওয়া হয়েছে ভবনটি। ২০১৪ সালে ব্রিটিশ ন্যানোটেক কোম্পানী ভ্যান্টাব্ল্যাক প্রস্তুতের ঘোষণা দেয়, যা মূলত অসংখ্য কার্বন ন্যানোটিউব এবং অ্যালুমিনিয়ামের ভিত্তির ওপর নির্মিত। এটি এতই কালো যেকোনো দোমড়ানো বস্তুকেও পুরোপুরি অন্ধকার বলে মনে হয় এবং একটি মসৃণ সমতল পৃষ্ঠ বলে মনে হয়।

গবেষকরা বলছেন, কয়লা পৃথিবীর সবচেয়ে কালো বস্তুগুলোর একটি যা প্রায় ৯৬% আলো শোষণ করে আর বাকী ৪% আলো প্রতিফলন করে। কিন্তু ভ্যান্টাব্ল্যাক ৯৯.৯৬% আলো শোষণ করে, অর্থাৎ বাস্তবে এর মধ্য থেকে কোনো আলো প্রতিফলিত হয় না। তাই এর দিকে তাকালে কেবল অন্ধকারই মনে হয়।

আরো পড়ুন : চীনের বিরুদ্ধে সেনা মোতায়েন করছে যুক্তরাষ্ট্র

অলিম্পিকের হুন্দাই প্যাভিলিয়ন কেন এ বস্তু দিয়ে কালো বানানো হলো? এ প্রসঙ্গে নির্মাতারা বলছেন, এটি অলিম্পিকের অভ্যাগতদের নতুন ধরনের অভিজ্ঞতা দেওয়ার জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। প্যাভিলিয়নে নিকষ কালো দেয়ালের ওপর হাজারো ছোট ছোট বাতি বসানো হয়েছে। এটি দর্শনার্থীদের মহাবিশ্বের গভীরতা সম্পর্কে ধারণা দেবে।

মহাকাশে ব্ল্যাক হোলও আলো টেনে নেয়। এ কারণে বিষয়টিকে অনেকে ব্ল্যাক হোলের সঙ্গে তুলনীয় বলেও মনে করছেন।

সূত্র : সিএনএন



মন্তব্য