kalerkantho


গাছের গুঁড়ির ভেতর কুকুরের মমি!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ২০:৫৪



গাছের গুঁড়ির ভেতর কুকুরের মমি!

১৯৮০ সালের ঘটনা। যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া রাজ্যের এক ওক গাছ কাটতে গিয়ে চমকে ওঠেন কাঠুরেরা। সেই বিশাল গাছের গুঁড়িতে মমি অবস্থায় রয়েছে এক জন্তু!

প্রাথমিক অবস্থা চমকে যান সবাই। পরে দেখা যায়, জন্তুটিকে মমি অবস্থায় অন্য রকম দেখালেও তা একটি কুকুর। বিশেষজ্ঞদের ধারণা, কোনো প্রাণীকে ধাওয়া করে কুকুরটি সেই গাছের ভেতরে ঢুকে পরে আর বেরিয়া আসতে পারেনি।

৩০ বছর ধরে কুকুরটির দেহ গাছের গুঁড়ির ভেতরে রয়েছে। না, তার দেহে কোনো পচন তো ধরেইনি, উল্টো তার দেহ একটি মমিতে পরিণতি হয়েছে।

আরো পড়ুন : রেললাইনে সেলফি তুলতে গিয়ে প্রাণ গেল তরুণীর!

বিশেষজ্ঞদের মতে, ওক গাছের ফাঁপা গুঁড়িতে বাতাসের প্রবেশ কম। তার উপরে নিজের গা কীটের কবল থেকে রক্ষা করতে ওক এক রকমের রাসায়নিকের নিঃসরণ করে। এসব কারণেই কুকুরটি মমি হয়ে গেছে।

এমন আশ্চর্য ঘটনা মানুষের সামনে জিঁইয়ে রাখতে গুঁড়ি সমেত কুকুরটিকে জর্জিয়ার ফরেস্ট ওয়ার্ল্ড ট্রি মিউজিয়ামে এগজিবিট হিসেবে রেখে দেওয়া হয়েছে। তার নাম দেওয়া হয় ‘স্টাকি’। এই মুহূর্তে স্টাকি ওই জাদুঘরের সবথেকে জনপ্রিয় এগজিবিট। 


মন্তব্য