kalerkantho


রজনীকান্ত অশিক্ষিত, দুর্নীতিবাজ: বিজেপি নেতা স্বামী সুব্রামানিয়াম

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩১ ডিসেম্বর, ২০১৭ ২১:১২



রজনীকান্ত অশিক্ষিত, দুর্নীতিবাজ: বিজেপি নেতা স্বামী সুব্রামানিয়াম

স্বামী সুব্রামানিয়াম ও রজনীকান্ত -ফাইল ফটো

তামিল সুপারস্টার রজনীকান্ত রাজনৈতিক দল করবেন এবং রাজনীতিতে আসছেন- ভক্তদের এমনি ঘোষণা দিয়েছেন আজ বছরের শেষ দিনটিতে। তিনি জানান, তামিলনাড়ুতে চলমান বিভ্রান্তিকর রাজনৈতিক পরিস্থিতির শেষ করতে চান তিনি।

কিন্তু তার ঘোষণা বাতাসে মিলিয়ে যাওয়ার আগেই প্রতিপক্ষ রাজনৈতিক বাক্যবাণের শিকার হলেন ৬৭ বছর বয়সী এই মহাতারকা। বিজেপি নেতা সুব্রামানিয়াম স্বামী তাকে অশিক্ষিত এবং দুর্নীতিবাজ উল্লেখ করে জানিয়েছেন, রাজনীতিতে নামার সঙ্গে সঙ্গে তার গোমর ফাঁস করে দেবেন তিনি।

আরো পড়ুন  পলিটিক্সকে ডরাই না, ডরাই মিডিয়াকে: রাজনীতিতে আসার ঘোষণায় রজনীকান্ত

রাজ্যসভা এমপি সুব্রামানিয়াম বলেন, তামিল অভিনেতাদের রাজনীতিতে নামার বহুবছরের পুরনো কাহিনীমাত্র এটা। আমি সব সময়েই তার বিরোধিতা করবো। তামিলনাড়ুর ভাবমূর্তির উন্নয়ন কেবল তখনি হতে পারে যখন এটা সিনেমা তারকাদের কবলমুক্ত হবে।     

এর আগে রজনীকান্ত ভক্তদের বলেন, 'আমি অবশ্যই রাজনীতিতে পদার্পণের করছি। এসময় কর্তব্যকাজে নেমে সবকিছু ঈশ্বরের হাতে ছেড়ে দেওয়া বিষয়ে পবিত্র গীতার শ্লোক আউড়ে তিনি বলেন, এটি সময়ের প্রয়োজন। চেন্নাইয়ের শ্রী রাঘবেন্দ্র কল্যাণ মণ্ডপে জড়ো হওয়া ভক্তদের রজনী জানান যে তিনি রাজনীতির কুটিল জগৎকে ভয়-ডর পান না, তবে অবশ্যই মিডিয়াকে ভয় পান। 

ভারত তথা তামিলনাড়ুর সিংহভাগ মানুষের পরমপ্রিয় শ্রদ্ধাভাজন রজনীকান্ত ঘোষণা করেন যে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে তিনি ২৩৪ আসনের সবকটিতে প্রার্থী দিতে সক্ষম। সেজন্য নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক দল গঠন করবেন।

তবে রাজনীতিতে আসতে রজনীকান্তের ঘোষণার অল্প সময়ের মধ্যেই বিজেপি নেতা সুব্রামানিয়াম স্বামীরজনীকান্তের সামনে প্রথম বাধা হয়ে দাঁড়ান। রজনীকান্তকে অশিক্ষিত উল্লেখ করে স্বামী সংবাদ সংস্থা এএনআইকে বলেন, তাকে রাজনৈতিক দলের নাম  এবং তার প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করতে দেন আগে। তারপর আমি তার হাটে হাঁড়ি ভেঙে দেব।

আরো পড়ুন  রজনীকান্ত : বাসের 'কন্ডাক্টর' থেকে ভারত মাতানো অভিনেতা

স্বামী সুব্রামানিয়াম বলেন, এখন সে শুধু রাজনীতিতে আগমনের কথা বলেছে, কিন্তু তার কাছে না আছে বিস্তৃত পরিকল্পনা না দলিল-দস্তাবেজ। ও একটা অশিক্ষিত, এটি শুধু  মিডিয়ায় স্টান্টবাজী, তামিলনাড়ুর মানুষজন বুদ্ধিমান।

তবে রজনীকান্ত জানিয়েছেন, তার দলের নীতি ও লক্ষ্য সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরা হবে। তার পার্টির মূলনীতি হবে- সততা, কঠোর পরিশ্রম ও উন্নয়ন।  

এদিকে, স্বামী সুব্রমানিয়াম তেলেবেগুনে জ্বলে উঠলেও রজনীকান্তের রাজনীতিতে নামার ঘোষণায় খুশি হয়েছেন দক্ষিণের আরেক মহাতারকা কমল হাসান। তিনি টুইটারে বলেন, আমি আমার ভাই রজনীকে তার সামাজিক সচেতনতা ও রাজনৈতিক অভিষেকের জন্য অভিনন্দন জানাই। স্বাগতম স্বাগতম!

রজনীকান্ত রাজনীতিতে নামছেন: টুইটার বার্তায় ক্ষুব্ধ সুব্রামানিয়াম ও খুশি কমল হাসানের প্রতিক্রিয়া

ধারণা করা হচ্ছে, কমল হাসানও রাজনীতিতে আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছেন অচিরেই। অনেকেই মনে করছেন, রজনীর সঙ্গে একই দলে থাকবেন কমল। 

প্রসঙ্গত, রজনীর রাজনীতিতে আসা নিয়ে বেশকিছুদিন ধরেই গুঞ্জন চলছিল। দক্ষিণ ভারতে রজনীকান্ত এতটাই জনপ্রিয় যে ধারণা করা হয়- তিনি চাইলে যে কোনো সময়েই তার রাজ্যের সরকারকে ফেলে দিতে পারেন।

সাবেক মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা মারা যাওয়ার পর এক অনুষ্ঠানে এমন কথার স্বীকৃতি রজনীর মুখেও শোনা গিয়েছিল। ওই অনুষ্ঠানে তিনি দুঃখপ্রকাশ করে জানিয়েছিলেন, একবার তিনি সাবেক জনপ্রিয় নায়িকা ও মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার সমালোচনা করেছিলেন- তারপরের নির্বাচনে জয়ললিতার দল হেরে যায়, তিনি ক্ষমতাচ্যুত হন।

রজনীকান্তের জনপ্রিয়তার বাস্তবতা অবশ্য স্বামী সুব্রামানিয়ামের কথায়ও ফুটে উঠেছে। তিনি আসলেই ভয় পেয়েছেন, বোঝা যাচ্ছে। নয়তো অমন পায়ে পাড়া দিয়ে ঝগড়া বাঁধাতে যাওয়া কেন? সূত্র: নিউজ১৮.কম, জনসত্তা.কম, উইকিপিডিয়া


মন্তব্য