kalerkantho


বক্তব্যে সিআইএ প্রধান

'যদি কিম জং-উন আচমকা হাওয়ায় মিলিয়ে যান...থাক এ নিয়ে কথা না বলি'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ অক্টোবর, ২০১৭ ১৪:১৯



'যদি কিম জং-উন আচমকা হাওয়ায় মিলিয়ে যান...থাক এ নিয়ে কথা না বলি'

সিআইএ প্রধান মাইক পম্পেও

ইউএস সেন্ট্রাল ইন্টেলিজিন্স এজেন্সি বা সিআইএ মনে করে, উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন একজন বাস্তববাদী অভিনেতা। তার একমাত্র লক্ষ্য ক্ষমতায় টিকে থাকা এবং প্রতিদিন সকালে নিজের বিছানায় ঘুম থেকে ওঠা।

কিন্তু হঠাৎ করেই একদিন যদি কিমকে নিজের কাজে না দেখা যায়, তবে সে জন্যে সিআইএ-কে কোনো প্রশ্ন করা যাবে না।  

সম্প্রতি আমেরিকার এই গুপ্তচর সংস্থার প্রধান বললেন, সম্মান জানিয়েই বলছি, যদি কিম জং-উন হাওয়ায় মিলিয়ে যান, তবে সে আমি কোনো কথাই বলতে চাইছি না।  

জাতীয় নিরাপত্তারক্ষীদের আনাগোনায় পরিপূর্ণ এক আয়োজনে তিনি হাসিমুখেই বলেন, এমন ঘটলে অনেকেই ভাবতে পারেন যে এটা কোনো কাকতালীয় বিষয়। ভাবতে পারেন, কোনো একটা দুর্ঘটনা ঘটে গেছে।  

সিআইএ প্রধানের এই বক্তব্যে কী কোনো ইঙ্গিত রয়েছে। বিশ্বনেতাদের অনেককেই ক্ষমতা বা দুনিয়া থেকে সরিয়ে দেওয়ার পটভূমি রচনার অন্ধকার ইতিহাস রয়েছে সিআইএ'র, এমিরেটসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়। ইরাক, কিউবা, কঙ্গো, ভিয়েতনাম এবং চিলির ক্ষেত্রে তেমনটাই দেখেছে বিশ্ববাসী।  

এ বছরের প্রথম দিকে উত্তর কোরিয়া অভিযোগ তুলে বলে, সিআইএ ইতিমধ্যে দক্ষিণ কোরিয়ান গোয়েন্দা সংস্থার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে কিমকে হত্যার জন্য। যদিও এর পক্ষে কোনো প্রমাণ দাঁড় করাতে পারেনি তারা।

 

সম্প্রতি ফাউন্ডেশন ফর ডিফেন্স অব ডেমোক্রেসিসের আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে কথা বলেন সিআইএ প্রধান মাইকেল রিচার্ড পম্পেও। সেখানে তিনি বলেন, কিম জং-উনের একমাত্র লক্ষ্য ক্ষমতায় থাকা।  

জানুয়ারিতে পম্পেও সিআইএ প্রধানের পদে আসীন হন। সংস্থার মাঠপর্যায়ের অপারেশনকে ঢেলে সাজাচ্ছেন তিনি।
সূত্র : এমিরেটস 


মন্তব্য