kalerkantho


গুরু হাঁটবে পিঠে, গর্ভে আসবে সন্তান!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ জুলাই, ২০১৭ ১৩:৩৭



গুরু হাঁটবে পিঠে, গর্ভে আসবে সন্তান!

চলতি জুলাই মাসেই হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের পবিত্র একাদশী উৎসব পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে ভারতের অন্ধ্র প্রদেশের অনন্তপুর জেলার লক্ষ্মী নরসিমা স্বামী মন্দিরে ঢল নেমেছিল সন্তান হয়নি এমন নারীর। কারণ সেই মন্দিরে রয়েছে এমন এক গুরু, যিনি পিঠের ওপর দিয়ে হেঁটে গেলেই নাকি গর্ভে আসবে সন্তান। এই বিশ্বাস থেকে ওই নারীরা প্রাণভরে নিয়েছে গুরুর পায়ের ছোঁয়া।

প্রজন্মের পর প্রজন্ম ধরে প্রতিবছর জুলাই মাসে ওই মন্দিরে বেশ ঘটা করে পালন করা হয় অনুষ্ঠানটি। অনেকেই দাবি করেন, পিঠের ওপর গুরুর পায়ের ছোঁয়ায় এর আগে গর্ভবতী হয়েছে অনেক নিঃসন্তান নারী। আবার অনেকে এও দাবি করেছেন, গুরুর এই পদছোঁয়া নিয়েও তাদের কোনো কাজ হয়নি। একাধিকবার এ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েও পেটে সন্তান আসেনি।

এবারের একাদশীর দিন ওই বিশেষ রীতিটির একটি ভিডিও অনলাইনে ভাইরাল হয়েছে। এতে দেখা যায়, মন্দিরের সামনে মাটিতে সারি বেঁধে শুয়ে আছে নারীরা। তাদের পিঠের ওপর দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন তাদের গুরু, যার গলায় ফুলের মালা, পরনে লাল কাপড়।

পিঠের ওপর গুরুর পা পাওয়ার জন্য সেখানে হুলুস্থুল অবস্থার সৃষ্টি হয়। ঘটনাটি দেখতে জমায়েত হয় স্থানীয় বাসিন্দারা।

অন্ধ্র প্রদেশের মানাকসিরা শহরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হরিলাল নায়ক বলেন, এই অঞ্চলের মানুষ প্রজন্মের পর প্রজন্ম গর্ভবতী হওয়ার এই রীতির প্রতি গভীর বিশ্বাস করে আসছে। কিন্তু এটা এখন পরিষ্কার, গুরু ওই নারীদের পিঠের ওপর দিয়ে হাঁটলেও গর্ভবতী হতে পারছে না। তার পরও তাদের বিশ্বাসের জোর কমছে না। প্রশাসনের বাধা সত্ত্বেও প্রতিবছর তারা আসছে, গুরুর এই টোটকা যদি কাজে লাগে এই আশায়। তাদের বিশ্বাস যত দিন থাকবে, তত দিন মনে হয় এই উৎসবও পালিত হবে।

 


মন্তব্য