kalerkantho


২০০ ডলারের ড্রোন ধ্বংসে ৩ মিলিয়ন ডলারের মিসাইল!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ মার্চ, ২০১৭ ১২:৩৪



২০০ ডলারের ড্রোন ধ্বংসে ৩ মিলিয়ন ডলারের মিসাইল!

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী সারা বিশ্বের নানা দেশে তাদের মিশন পরিচালনা করে। এ ধরনের এক মিশনের ঘটনা এটি।

মাত্র ২০০ ডলারের একটি ড্রোন ধ্বংস করতে ব্যবহৃত হয় তিন মিলিয়ন ডলার মূল্যের প্যাট্রিয়ট মিসাইল। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ইনডিপেনডেন্ট।

মার্কিন সামরিক বাহিনীর জেনারেল ডেভিড পার্কিনস সম্প্রতি তাদের প্যাট্রিয়ট মিসাইলের ড্রোন বিধ্বংসী ব্যবস্থার ব্যবহার সম্পর্কে কিছু তথ্য জানাচ্ছিলেন এক সেমিনারে। সেখানেই উঠে আসে এ অদ্ভুত তথ্য।
সাধারণ একটি কোয়াডকপ্টার ড্রোন অনেকটা খেলনার মতোই। এ ধরনের ড্রোন বিভিন্ন স্থানে কিনতে পাওয়া যায়। আর তার সঙ্গে প্যাট্রিয়ট মিসাইলের কোনো তুলনাই চলে না। কারণ প্যাট্রিয়ট মিসাইলের নির্মাণব্যয় গড়ে তিন মিলিয়ন ডলার। এগুলো রাডারের সহায়তায় শত্রু ড্রোনের অবস্থান নির্ণয় করে এবং শব্দের পাঁচ গুণ গতিতে শত্রুকে আঘাত হানে।

আকাশে থাকতেই তা শত্রুর মিসাইল ও ড্রোনকে ধ্বংস করে দেয়।

কিন্তু এ ড্রোন কী ধ্বংস করতে ব্যবহৃত হবে, সে বিষয়ে কিছুটা অস্পষ্টতা রয়েই গেছে। এ কারণে কখনো কখনো মাত্র ২০০ ডলারের ড্রোন ধ্বংস করতেও ব্যবহৃত হয় প্যাট্রিয়ট মিসাইল।

মার্কিন জেনারেল দাবি করেন, যুদ্ধক্ষেত্রে তিনি প্রত্যক্ষ করেছেন এ ধরনের এক ঘটনা। তবে সেটি মার্কিন সামরিক বাহিনী না করলেও তাদের ঘনিষ্ঠ এক মিত্রবাহিনী করেছে। অবশ্য ঠিক কোন দেশের সেনাবাহিনী এ কাণ্ডটি ঘটিয়েছে, সে বিষয়ে বিস্তারিত জানাননি সেই জেনারেল।


মন্তব্য