kalerkantho


ধিক, কী নির্লজ্জ কাণ্ড!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ মার্চ, ২০১৭ ২১:৫৩



ধিক, কী নির্লজ্জ কাণ্ড!

অভিযুক্ত সলিমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ -এনবিটি

অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী এক ভারতীয় যুবক ও তার মাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ বেশ অদ্ভুত আর ঘিনঘিনে।

নবভারতটাইম্‌স.কম জানায়, ওই ব্যক্তি তার বিয়ে করা বউকে ধর্ষণের সুযোগ করে দিয়েছে নিজের এক বন্ধুকে।  

হাদারাবাদের কাঞ্চনবাগ থানা পুলিশ জানায়, ২০১৬ সালে বিয়ে করে সলিমুদ্দিন নামের স্থানীয় যুবক। এরপর নবপরিনীতা স্ত্রীকে দেশে রেখে পোস্ট গ্রাজুয়েশন করার জন্য অস্ট্রেলিয়া চলে যায় সে। তবে প্রবাস থেকে প্রায়ই স্ত্রীকে নগ্ন হয়ে তার সঙ্গে ভিডিও চ্যাট করতে এবং নগ্ন ভিডিও পাঠাতে বাধ্য করতো সে। একান্ত ব্যক্তিগত আর আপত্তিকর ওইসব ভিডিও সলিম তার বন্ধুদেরও দেখাতো।  

এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৩ ফেব্রুয়ারি দেশে ফিরে সে। এসময় দেখা যায় অস্বাভাবিক কায়দায় মিলিত হতে স্ত্রীকে বাধ্য করছে সলিম।  

তবে ঘটনা এখানেই শেষ নয়। কিছুদিন আগে চান্দ নামে এক বন্ধুকে বাড়িতে নিয়ে আসে সে।

এরপর স্ত্রীকে কড়া ঘুমের ওষুধ খাইয়ে তার সঙ্গে মিলিত হয়। এসময় ঘুমের ঘোরে মেয়েটি তাদের বেডরুমে চান্দকেও দেখতে পায়।  

সাউথ জোন পুলিশের ডেপুটি কমিশনার সত্যনারায়ণ বলেন, ভিক্টিম ঘুমিয়ে যাওয়ার পর সলিম তার বন্ধুকে লেলিয়ে দেয় স্ত্রীর ওপর। ওষুধের প্রভাবে ঘুমে কাতর বন্ধুস্ত্রীকে চান্দ ধর্ষণ করে। পরদিন মেয়েটি বিষয়টি টের পেয়ে থানায় এসে অভিযোগ দায়ের করে।  

লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে সলিমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অপরাধে সহায়তার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তার মাকেও। তবে অভিযুক্তদের বক্তব্য জানা যায়নি।

  


মন্তব্য