kalerkantho


আধুনিক পারমাণবিক বোমা কতটা শক্তিশালী? দেখুন ভিডিওতে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ মার্চ, ২০১৭ ১১:৩৪



আধুনিক পারমাণবিক বোমা কতটা শক্তিশালী? দেখুন ভিডিওতে

পারমাণবিক বোমা বিস্ফোরণের পর বেশ কয়েক দশক কেটে গেছে। মানুষ জানতে পেরেছে এর ভয়াবহ প্রভাবের কথা।

কিন্তও এরপরও এ বোমা উৎপাদন থেমে নেই। যেন মানুষকে ধ্বংস করার জন্যই প্রস্তুত হচ্ছি আমরা নিজেরাই। সম্প্রতি এক অ্যানিমেশন ভিডিওতে পারমাণবিক বোমার সেই ভয়াবহতা কতটা দূর পর্যন্ত বিস্তৃত হতে পারে তার একটি চিত্র তৈরি করা হয়েছে। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে বিজনেস ইনসাইডার।
বাস্তবে যুদ্ধক্ষেত্রে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় মাত্র দুটি পারমাণবিক বোমা বিস্ফোরিত করা হয়েছিল। লিটল বয় নামের প্রথম বোমাটি ৬ আগস্ট ১৯৪৫ সালে জাপানের হিরোশিমাতে এবং ফ্যাট ম্যান নামক দ্বিতীয় বোমাটি তিনদিন পর জাপানের নাগাসাকিতে নিক্ষেপ করা হয়। কিন্তু এর ফলাফল ছিল ভয়াবহ। প্রচণ্ড বিস্ফোরণ ও ক্ষতিকর আলোক-কণা বিকিরণের কারণে তাৎক্ষণিকভাবে মারা গিয়েছিল প্রায় ১২০,০০০ লোক এবং আয়নাইজিংয়ের ফলে ধীরে ধীরে আরো অসংখ্য মানুষ মারা গিয়েছিল।
পারমাণবিক অস্ত্র এমন এক ধরনের যন্ত্র যা নিউক্লিয়ার বিক্রিয়ার ফলে প্রাপ্ত প্রচণ্ড শক্তিকে কাজে লাগিয়ে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞের সৃষ্টি করে। বিক্রিয়ার কারণেই খুবই অল্প পরিমাণ পদার্থ থেকে বিশাল পরিমাণে শক্তি নির্গত হয়। আধুনিক এক হাজার কিলোগ্রামের একটি থার্মো-নিউক্লিয়ার অস্ত্রের বিস্ফোরণ ক্ষমতা প্রচলিত প্রায় ১ বিলিয়ন কিলোগ্রামের প্রচণ্ড বিস্ফোরক দ্রব্যের চেয়েও বেশি। এভাবেই শুধুমাত্র প্রচলিত বোমার সমান আকারেই একটি পারমাণবিক বোমা দ্বারাই একটি শহরকে ধ্বংস করে দেয়া যায়। পারমাণবিক অস্ত্রকে ধরা হয় ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞের এক বোমা হিসেবে।
হিরোশিমা ও নাগাসাকির সেই বিস্ফোরনের পরেও এখন পর্যন্ত আরও পাঁচ শতাধিকবার পরীক্ষামূলকভাবে এবং প্রদর্শনের জন্য এ বোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে। বর্তমানে পারমাণবিক বোমার বিস্ফোরন ঘটিয়েছে এবং মজুদ রয়েছে এমন দেশগুলো হলো যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, চীন, ভারত ও পাকিস্তান। এছাড়া উত্তর কোরিয়া, ইরান, ইসরাইলেও পারমাণবিক অস্ত্র রয়েছে বলে জানা যায়।
ভিডিওতে দেখুন আও কিছু তথ্য-


মন্তব্য