kalerkantho


নানি না ডাইনি!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ মার্চ, ২০১৭ ১৫:৫০



নানি না ডাইনি!

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এক নারী তার আট বছর বয়সী নাতনিকে রীতিমতো পাশবিক কায়দায় নির্যাতন করে হত্যা করেছেন। আর এ ঘটনা যিনি ঘটিয়েছেন, সেই ৫৫ বছর বয়সী নারী অন্য কেউ নন স্বয়ং সে শিশুর নানি।

এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে এমিরেটস।

আট বছর বয়সী শিশুটিকে শুধু শ্বাসরোধে হত্যাই করেননি সেই নানি। তিনি তাকে এর বেশ কয়েকদিন আগে থেকেই খেতে দিচ্ছিলেন না। এমনকি পানিও পান করতে দেননি তিনি।

হেলেন ফোর্ড নামে সেই নারীর এ নিষ্ঠুরতার ঘটনা প্রাথমিকভাবে জানা যায়নি। কিন্তু এরপর পাওয়া যায় সে শিশুটির ডায়েরি। সেই ডায়েরিতেই সে লিখে রেখে গিয়েছিল তার নানির নির্যাতনের নানা কাহিনী। এ ডায়েরি আইনশৃঙ্ক্ষলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে পড়ার পর উন্মোচিত হয় তার নানীর সেই অত্যাচার করে হত্যার রহস্য।

শিশুটিকে নির্যাতন করে হত্যার ঘটনাটি ঘটে ২০১৩ সালে।

সম্প্রতি আদালতে বিচারকাজ শেষে হেলেন ফোর্ডকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়। তার বাবাও এ ঘটনায় জড়িত ছিল বলে জানা যায়। তবে মামলাটি বিচারাধীন অবস্থায় ২০১৪ সালে মারা যাওয়ায় তাকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে বিচারক বলেন, 'এ হত্যাকাণ্ড ছিল খুবই অত্যাচার। শিশুটিকে ধীরে ধীর অত্যন্ত নির্যাতন করে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়া হয়েছে। '


মন্তব্য