kalerkantho


পিসার হেলানো টাওয়ার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ মার্চ, ২০১৭ ১১:২৭



পিসার হেলানো টাওয়ার

অনেক রকম টাওয়ারের কথাই তো শুনেছেন। কিন্তু কখনো কি হেলানো টাওয়ারের কথা শুনেছেন? এমন একটি হেলানো টাওয়ারের কথা বলবো আজ। ইতালির প্রাচীন নগরী পিসা। ১১৭৩ সালে রোমান ক্যাথলিকদের ঘণ্টা স্থাপনের জন্য একটি টাওয়ার নির্মাণের কাজ শুরু হয়। স্থাপত্যশৈলীর গোলাকার এই টাওয়ারের তৃতীয় তলার কাজ শেষ হতে সময় লাগে বছর পাঁচেক। আর তখনই ঘটে অদ্ভুত ঘটনা। হেলতে শুরু করে টাওয়ারটি। জানা গেল, স্থাপত্যশৈলীর ভুল ছিল। নরম মাটিতে তিন মিটার গভীরতা টাওয়ার নির্মাণের জন্য যথেষ্ট ছিল না। কিন্তু স্থপতিরাও দমার পাত্র নয়। হেলে যাওয়ার মধ্যেই গড়তে থাকেন একের পর এক তলা।

আর টাওয়ারও ক্রমেই হেলতে থাকে।

আরো মজার কথা হলো, ১৮০ ফুট উচ্চতার এই টাওয়ারের নির্মাণ কাজ চলে প্রায় ২০০ বছর ধরে। কারণ মাঝখানে নানা নাটকীয়তা, উৎকণ্ঠা আর রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মধ্যে নির্মাণকাজ বন্ধ ছিল। যা-ই হোক নির্মাণ কাজ শেষ হলেও টাওয়ারের হেলে যাওয়া বন্ধ রাখতে পারেনি প্রকৌশলীরা। শত চেষ্টা করার পরেও প্রতিবছর হেলতে থাকে স্থাপনাটি। অবশেষে ১৯৯৮ সালে এসে একটি ফলপ্রসূ উপায় পাওয়া গেল।

বিশেষ কাঠামোর মধ্যে দিয়ে এই স্থাপনাকে অনেকটা ধরে, বেঁধে সরিয়ে ফেলা হয় নিচের আলগা মাটি। পাশাপাশি বিশাল পরিমাণ ওজনদার বস্তু হেলে পড়ার উল্টো দিকে চাপিয়ে দেন স্থপতিরা। চারপাশে বেঁধে দেওয়া হয় বিশেষ মাচা। ২০১১ সালে সব মাচা আবার খুলেও ফেলা হয়। এতে রক্ষা পায় টাওয়ারটি। এখন হেলে পড়া বন্ধ হয়েছে। তবে কয়েক শ বছর হেলে পড়তে পড়তে এখনো প্রায় স্বাভাবিকের চেয়ে ১৩ ফুট হেলে আছে। আর এটাই নাকি হেলানো টাওয়ারের স্বাভাবিক অবস্থা।

 


মন্তব্য