kalerkantho


চুল আঁচড়ালেই মৃত্যু!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২ মার্চ, ২০১৭ ১৯:৪৪



চুল আঁচড়ালেই মৃত্যু!

স্কুলপড়ুয়া মেয়েটির বাস স্কটল্যান্ডে। দুনিয়ায় অনেক বিরল রোগ আছে।

কিন্তু এই স্কটিশ মেয়েটির রোগ বিরলগুলোর মধ্যেও বিরল। এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, চুল আঁচড়ালেই মৃত্যু ঘটতে পারে তার!

মেগান সট্রুয়ার্ট নামের মেয়েটি ভুগছিল 'হেয়ার ব্রাশিং সিনড্রোম'-এ। বছর ছয়েক আগে তার এ সমস্যার কথা প্রকাশ পায়। চুল আঁচড়ানোর সময় মাথার ত্বকে সামান্য মাত্রার বিদ্যুৎ তরঙ্গ উৎপন্ন হয়। আর তা ঘটলেই মেগানের মস্তিষ্কের যাবতীয় কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যেতে পারে। ফলাফল- মৃত্যু!

২০০৮ সালে প্রথম বিষয়টি লক্ষ্য করেন মেগানের মা। কোনো এক দিন মেগান স্কুল যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলো। চুল আঁচড়াতে গিয়েই দেখা দিলো বিপত্তি। মেগানের হাত থেকে চিড়ুনি পড়ে গেল, তার ঠোঁট বেদনায় নীল হয়ে আসলো।

সঙ্গে সঙ্গে ডাকা হলো প্যারামেডিকদের।

গ্লাসগোর ইয়র্কহিল হসপিটালের চিকিৎসকরা জানালেন, এটা এক বিরল মেডিক্যাল অবস্থা। এমন সমস্যার কথা এর আগে কেবল একবার শুনেছেন তারা। চুল আঁচড়ালেই মস্তিষ্কসহ দেহের প্রধান প্রত্যঙ্গগুলো তাদের কাজ বন্ধ করে দেয়।

তাই বেঁচে থাকতে মেগানকে বিশেষ কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে। মাথা নুয়ে সেখানে পানি ঢালতে হবে মাঝে মাঝে। কোনো জন্মদিনের পার্টিতে মাথায় কিছু পরতে পারবে না। বেলুন ঘষতে মানা। এমনকি কোনো চকচকে পোশাকও পরতে পারবে না সে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, জন্মগত ত্রুটির কারণে এমনটা হতে পারে। মেগানের জন্মের তিন মাস আগে তার মায়ের প্রি-এক্লেমশিয়া ধরা পড়েছিল। সূত্র: এমিরাটস

 


মন্তব্য