kalerkantho


গনগনে আগুনের আংটি হয়ে জ্বলবে সূর্য আগামীকাল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২০:৫২



গনগনে আগুনের আংটি হয়ে জ্বলবে সূর্য আগামীকাল

ঘটনা ঘটবে আগামীকাল। আকাশে জ্বলতে থাকবে গনগনে আগুনের আংটি! সূর্যটা সত্যিকার অর্থেই নাটকীয়তার সঙ্গে আংটির রূপ নেবে। জ্বলজ্বলে দেখাবে ওটাকে। দক্ষিণ আমেরিকা এবং আফ্রিকার ভাগ্যবান মানুষরা আকাশটাকে ওই সময় পরিষ্কার অবস্থায় পাবেন। তারা বিস্ময়কর প্রাকৃতিক ঘটনাটি স্বচক্ষে দেখতে পারবেন। সূর্যের এ ঘটনাকে বলা হয় 'অ্যানুলার এক্লিপস'।

সূর্যগ্রহণ তখনই ঘটে যখন পৃথিবী, চাঁদ এবং সূর্য নিখুঁতভাবে এক লাইনে থাকে। তখন চাঁদ পৃথিবীর ওপর ছায়া ফেলে। চাঁদ পৃথিবীকে উপবৃত্তাকার পথে ঘুরতে থাকে। বিভিন্ন স্থান থেকে যারা আকাশের দিকে তাকিয়ে থাকেন, তাদের কাছে দুটো বস্তুর দৃশ্যমান অবস্থা ভিন্ন হতে পারে দূরত্বের বিচারে। তাই চন্দ্রাকার আকারটাও একেক স্থানের মানুষের কাছে একেক ধরনের মনে হবে।

সূর্যগ্রহণ তখনই ঘটে যখন চাঁদ পৃথিবীর যথেষ্ট কাছে চলে আসে। তখন পৃথিবীবাসীর কাছে মনে হয়, চাঁদ সূর্যকে ঢেকে দিচ্ছে। অ্যানুলার এক্লিপস তখনই ঘটে যখন চাঁদ পৃথিবী থেকে যথেষ্ট দূরে অবস্থান করে এবং দৃশ্যমান সূর্যের গোলাকার চাকতি থেকে চাঁদকে ছোট মনে হয়।

আগামীকালের অ্যানুলার সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে দক্ষিণ আমেরিকার একেবারে দক্ষিণ অংশে। সূর্যাস্তের স্থানীয় সময়েই আগুনের আংটি হয়ে যাবে সূর্য।

তবে চিলির স্থানীয় সময় ১০টা ৩৫ মিনিটে সূর্য পূর্ণাঙ্গ আংটির রূপ পাবে। এই অবস্থায় সূর্যগ্রহণ খুব দ্রুত আটলান্টিক মহাসাগর পেরিয়ে আর্জেন্টিনার পাতাগনিয়া অঞ্চলে সরে যাবে।

অ্যাঙ্গোলায় স্থানীয় সময় ৪টা ২০ মিনিটে আবারো দেখা যাবে এটি। জাম্বিয়ার ওপর দিয়ে যবে। আর ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব দ্য কঙ্গোর স্থানীয় সময় ৬টা ২০ মিনিটে অ্যানুলার এক্লিপসের প্রয়াণ ঘটবে।

দৃষ্টিপথ খোলা থাকলে এবং আকাশ পরিষ্কার থাকলে এই দারুণ ঘটনা দেখা যাবে। দক্ষিণ গোলার্ধের মানুষরা এই মহাজাগতিক ঘটনা চাক্ষুস করতে পারবেন। মনে হবে, চাঁদ সূর্যের দেহে কামড় বসিয়ে দিয়েছে।

সূর্যের ৪০ শতাংশ চাঁদ ঢেকে ফেলেছে- এমনটা দেখতে পারবেন ব্রাজিল, প্যারাগুয়ে এবং বলিভিয়ার মানুষরা। আর আর্জেন্টিনা, উরুগুয়ে এবং আফ্রিকার দক্ষিণ ও নিরক্ষীয় অংশের মানুষরা সূর্যের ৯০ শতাংশ হারাতে দেখবেন।

এ ঘটনা দেখার সময় নিরাপত্তার কথা ভুলে গেলে চলবে না। সরাসরি তাকাতে মানা করেছেন বিশেষজ্ঞরা। এমনকি সূর্যের একেবারে সরু অংশের দিকেও খালি চোখে তাকানো ঠিক না। টেলিস্কোপ বা ক্যামেরায় দেখলে অবশ্যই সামনের লেন্সে সোলার ফিল্টার লাগিয়ে নিতে হবে। এ ছাড়া সানগ্লাস পরলেও কিছুটা নিরাপত্তা মিলবে। এর জন্য আসলে স্পেশাল এক্লিপস ভিউয়িং গ্লাসেস কিনতে পাওয়া যায়। এগুলো ক্ষতিকর রশ্মি চোখে প্রবেশ রোধ করে। সূত্র: ন্যাশনাল জিওগ্রাফি

 


মন্তব্য