kalerkantho


অন্যের পরিবার ধ্বংসকারীরা যেন পরিবারের দোহাই না দেয়!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:২২



অন্যের পরিবার ধ্বংসকারীরা যেন পরিবারের দোহাই না দেয়!

১৯৯৬ সালে ভারতের লাজপত নগরে বোমা হামলা মামলায় অভিযুক্ত নওশাদের অন্তবর্তী জামিনের আবেদন নাকচ করে দিয়েছে ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট। মেয়ের বিয়ে উপলক্ষ্যে জামিন আবেদন করা হয়েছিল তার পক্ষে।

সোমবার নয়াদিল্লিতে সুপ্রিম কোর্ট ওই জামিন আবেদনের শুনানিতে বলেন, যারা এমন ধরনের মারাত্মক অপরাধমূলক কাণ্ড করে সাধারণ মানুষকে হত্যার জন্য দায়ী- এ ধরনের লোক আদালতের দয়া ভিক্ষা আশা করতে পারে না।  

সুপ্রিম কোর্ট জামিন প্রত্যাশী নওশাদকে বলেন, যদি আপনি এভাবে সাধারণ মানুষকে হত্যা করেন তবে আপনি আদালতে নিজের পরিবারের কথা কীভাবে বলেন? 

এই মামলার শুনানি প্রধান বিচারপতি জে এস খেহরের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চে চলছে। মামলায় দোষী সাব্যস্ত নওশাদকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে কারাভোগরত নওশাদের মেয়ের বিয়ে  উপলক্ষ্যে অন্তবর্তী জামিন চাওয়া হয়।  

১৯৯৬ সালের ২১ মে লাজপত নগরের সেন্ট্রাল মার্কেটের ওই বোমা হামলায় ১৩ জন নিহত ছাড়াও আহত হন ৩৮ ব্যক্তি।  

শুনানি শেষে আদালত নওশাদকে জামিন বা কাস্টডি প্যারল কোনোটাই দেননি।  

নওশাদের আইনজীবী সিদ্ধার্থ দাবে আর্জি জানিয়েছিলেন যে তার মক্কেল এরইমধ্যে ২০ বছর কারাভোগ করেছে- তাই আদালত যেন তার বিষয়ে কোমলতা প্রদর্শন করেন। দাবে আরও বলেন, ওই ঘটনায় দায়ের বিস্ফোরক মামলার সাজা ভোগ করা হয়ে গেছে নওশাদের। বর্তমানে হত্যা ষড়যন্ত্রের মামলার সাজা ভোগ করছে সে।

 

তবে তার যাবজ্জীবনের সাজা চ্যালেঞ্জ করে বাদীপক্ষ আপিল করেছিল। সোমবারের শুনানিতে  বিষয়টি আমলে নিয়ে আদালত জামিন আবেদন নাকচ করে দেন। এনবিটি


মন্তব্য