kalerkantho


২০৩০ সালের মধ্যে ভারতের সব শক্তির যোগান দেবে চাঁদ!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৫:১৫



২০৩০ সালের মধ্যে ভারতের সব শক্তির যোগান দেবে চাঁদ!

আগামীদিনে ভারতে যত ধরনের শক্তির প্রয়োজন হবে, তার উৎস হতে চলেছে চাঁদ। এমনকি পৃথিবীর এই উপগ্রহই আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে বস্তুত পৃথিবীবাসীর সমস্ত শক্তির চাহিদাও পূরণ করবে। ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরোর এক বিজ্ঞানী এমনটাই দাবি করেছেন।

এস পিল্লাই নামে ইসরোর এই বিজ্ঞানী গবেষক, শক্তি সম্পর্কিত এক সম্মেলনে জানিয়েছেন, দেশে প্রয়োজনীয় সমস্ত ধরনের শক্তির চাহিদা আমরা চাঁদ থেকে নিয়ে পূরণ করতে পারব। কারণ চাঁদে প্রচুর পরিমাণে হিলিয়াম-৩ রয়েছে।

তিনি জানিয়েছেন, ২০৩০ সালের মধ্যেই এমনটা করা সম্ভব হবে। কল্পনা চাওলা স্পেস পলিসি ডায়লগ, যার উদ্যোক্তা ছিল অবজার্ভার রিসার্চ ফাউন্ডেশন- তাদের সম্মেলনেই এমনটা দাবি করেছেন ইসরোর বিজ্ঞানী পিল্লাই।

ইসরোর এই কৃতী বিজ্ঞানী এর আগে ব্রহ্মস এয়ারোস্পেস-এর প্রধান ছিলেন। বলেছেন, চাঁদের শুকনো মাটি খনন করতে হবে। তার মধ্যেই রয়েছে প্রচুর পরিমাণে হিলিয়াম-৩। এই প্রকল্পকেই আপাতত পাখির চোখ করেছে ইসরো।

জানা গিয়েছে, শুধু ভারত নয়, চাঁদ থেকে হিলিয়াম সংগ্রহে চেষ্টা করে চলেছে অন্য দেশও। মজাচ্ছলে ইসরোর বিজ্ঞানী পিল্লাই জানিয়েছেন, আর কয়েকদশক বাদে চাঁদে মধুচন্দ্রিমা করতে যাবে মানুষ।
সূত্র: দ্য ডন


মন্তব্য