kalerkantho


গুগলে চাকরি চেয়ে ৭ বছরের মেয়ের চিঠি, জবাব দিলেন সিইও...

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৩:১৪



গুগলে চাকরি চেয়ে ৭ বছরের মেয়ের চিঠি, জবাব দিলেন সিইও...

গুগলে চাকরির সুযোগ ছাড়বেন এমন মানুষ দুনিয়ায় কমই আছেন। চাকরিপ্রাথীদের কাছে পৃথিবীর সবচেয়ে আকাঙ্ক্ষিত প্রতিষ্ঠানের একটি গুগল।

হরহামেশাই এখানে চাকরির আবেদন করেন প্রার্থীরা। কিন্তু এবারের বিষয়টি সম্পূর্ণই আলাদা। এক চাকরির আবেদনের প্রেক্ষিতে চিঠিতে পাল্টা জবাব পাঠিয়েছেন খোদ গুগল সিইও সুন্দর পিচাই।

ব্রিটেনের মেয়ে ক্লো ব্রিজওয়াটার। বয়স মাত্র ৭ বছর। এই বয়সেই ছোট্ট হাতে সে গুগলে চাকরির চেয়ে আবেদন করে বসলো পিচাইয়ের কাছে। দারুণ চমৎকৃত হলেন সিইও। তিনি নিজেই মেয়েটিকে একটি চিঠি লিখলেন। কয়জন প্রার্থীর ভাগ্যে জোটে গুগলের সিইও এর পাল্টা জবাব? পিচাই মেয়েটির এই অনুপ্রেরণায় ঘি ঢাললেন।

তাকে কঠোর পরিশ্রম এবং স্বপ্ন পূরণের পথে এগিয়ে যেতে উৎসাহ জোগালেন। পড়াশোনা শেষ করে গুগলে আবারো চাকরির আবেদন করতে বললেন।

ব্রিজওয়াটার তার চিঠিটি লিখেছে নিজের হাতে। কচি হাতের লেখা পড়তে সমস্যা হলেও মন দিয়ে পড়েছেন পিচাই। সম্বোধনে সে লিখেছে 'ডিয়ার গুগল বস'। কিন্তু এত প্রতিষ্ঠান থাকতে গুগলকে সে কেন চিঠি লিখে বসলো? রহস্য উন্মোচন করলেন মেয়েটির বাবা অ্যান্ডি ব্রিজওয়াটার। সম্প্রতি ক্লো তার বাবারে জিজ্ঞাসা করে, কাজের সবচেয়ে ভালো জায়গা কোনটা? জবাবে তিনি গুগলের কথা বলেন। গুগল ক্যাম্পাস পৃথিবীর সেরাদের কর্মক্ষেত্র, এ গল্প শুনিয়েছেন তিনি। আর সেখান থেকেই স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছে বাচ্চা মেয়েটি। সে এও জেনেছে যে, সেখানে খেলার জন্য ব্যাগ চেয়ার, গো কার্টস এবং স্লাইড রয়েছে।

বাবাকে ক্লো জানায়, একদিন সে গুগলে কাজ করবে। আগে থেকেই এর প্রস্তুতি নিতে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছেন বাবা। চাকরির জন্য একটি আবেদনপত্র লিখতে বলেন তিনি। তাই সে এ কাজ করে বসেছে। চিঠিতে সে লিখেছে যে, কম্পিউটার, রোবট আর ট্যাব তার খুবই পছন্দের। স্কুলেও সে ভালো শিক্ষার্থী। গুগল ছাড়াও সে একটি চকোলেট ফ্যাক্টরিতে চাকরি করতে চায়। অলিম্পিকে সাঁতার কাটারও ইচ্ছা রয়েছে তার।

সে লিখেছে, প্রিয় গুগল বস, আমার নাম ক্লো এবং যখন আমি বড় হবো তখন গুগলে চাকরি করতে চাই। আমি একটি চকোলেট ফ্যাক্টরিতেও কাজ করতে চাই এবং অলিম্পিকে সাঁতার কাটতে চাই। আমি শনিবার ও মঙ্গলবার সাঁতারে যাই। আমার বাবা বলেছে, গুগলে চাকরি করলে আমি একটি স্লাইড করতে পারবো এবং গো কার্টেও চড়তে পারবো।

নিজের বোন সম্পর্কেও লিখেছে সে, আমার বোন হোলির অনেক বুদ্ধি আছে। কিন্তু সে পুতুল আর জামা বেশি পছন্দ করে।

এভাবে তার বিশাল চিঠি স্বপ্নে কথা জানিয়েছে। পিচাই গোটা চিঠি পড়েছেন এবং তার জবাব দিয়েছেন আন্দরিকতার সঙ্গে। লিখেছেন, তোমার চিঠির জন্য অনেক ধন্যবাদ। তুমি রোবট আর কম্পিউটার পছন্দ করো জেনে খুশি হয়েছি। আশা করছি তুমি প্রযুক্তি নিয়ে আরো জানতে থাকবে।

শেষে ক্লো এবং তার পরিবারের প্রতি শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি। ক্লোয়ের আত্মবিশ্বাস ও উৎসাহ দেখে মুগ্ধ বনে গেছেন সিইও। হয়তো ভবিষ্যতে গুগলের মুখ আরো উজ্জ্বল হয়ে উঠবে ক্লোয়েরই হাতে। সূত্র: এনডিটিভি

 


মন্তব্য