kalerkantho


পাকিস্তানে সিএসএস পরীক্ষা উর্দুতে নেওয়ার নির্দেশ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৭:১৬



পাকিস্তানে সিএসএস পরীক্ষা উর্দুতে নেওয়ার নির্দেশ

পাকিস্তানি শাসকদের উর্দুর প্রতি আগ্রহ বহুদিনের। ১৯৪৮ সালে পাকিস্তান সরকার ঘোষণা করে যে, উর্দুই হবে পাকিস্তানের একমাত্র রাষ্ট্রভাষা। তবে এখনও পাকিস্তানের সে ঘোষণা বাস্তবায়িত হয়নি। পাকিস্তানের আমলাতন্ত্র পুরোপুরি উর্দু ব্যবহার করে না। পাকিস্তানের আমলা নিয়োগের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা সিএসএস এখনও ইংরেজিতেই হয়।
মাতৃভাষা স্বীকৃতির দাবিতে পূর্ব পাকিস্তান তথা বর্তমান বাংলাদেশে ভাষা আন্দোলন দানা বাঁধে। ২১ ফেব্রুয়ারি সে ভাষা আন্দোলনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় হয়ে ওঠে। আর সে ফেব্রুয়ারি মাসেই পাকিস্তানের আদালত থেকে নির্দেশ এল উর্দু ভাষায় সেন্ট্রাল সুপেরিয়র সার্ভিসেস বা সিএসএস পরীক্ষা নেওয়ার।
পাকিস্তানে আমলা নিয়োগের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা সেন্ট্রাল সুপেরিয়র সার্ভিসেস বা সিএসএস। এ পরীক্ষা এতদিন ইংরেজিতেই হয়েছে।
মঙ্গলবার লাহোর হাইকোর্ট এ নির্দেশটি দিয়েছে পাকিস্তানের ফেডারেল পাবলিক সার্ভিস কমিশনকে (এফপিএসসি)।

একই ধরনের আরেকটি আদেশ দেওয়া হয়েছিল ২০১৫ সালে। তবে সে আদেশ সঠিকভাবে বাস্তবায়ন না হওয়ায় নতুন করে এ আদেশটি দিয়েছে আদালত।
স্বাধীনতার পর পাকিস্তানের এ পরীক্ষাটি নেওয়া হত ‘সিভিল সার্ভিস অব পাকিস্তান’ নামে। তবে ১৯৭১ সালে এ পরীক্ষায় কিছুটা পরিবর্তন এনে সেন্ট্রাল সুপেরিয়র সার্ভিসেস বা সিএসএস নামে নেওয়া শুরু হয়। সাধারণত প্রতি বছরের শুরুতেই এ পরীক্ষা নেওয়া হয়।
আদালতে এ বিষয়ে পিটিশনটি করেন অ্যাডভোকেট সাইফুর রেহমান। পিটিশনে বলা হয়, এফপিএসসি পরীক্ষার জন্য বিজ্ঞাপন দিয়েছে, কিন্তু কোন ভাষায় পরীক্ষা হবে তা লেখা হয়নি। আর এ কারণে বিষয়টি পরিষ্কার করার জন্য আবেদন করেন তিনি। এরপর বিচারপতি আতির মাহমুদ রায়ে পরীক্ষাটি উর্দুতে নেওয়ার নির্দেশ দেন।
এ নির্দেশ দেওয়ার পর পরীক্ষা কমিটি জানিয়েছে তারা পরীক্ষাটি ইংরেজি থেকে উর্দুতে নেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় কাজ শুরু করছে। এজন্য একটি কমিটিও তৈরি করা হয়েছে। সূত্র : ডন।


মন্তব্য