kalerkantho


উন্নয়নশীল বিশ্বের সেরা ২২ বিশ্ববিদ্যালয়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৩:১৫



উন্নয়নশীল বিশ্বের সেরা ২২ বিশ্ববিদ্যালয়

আমেরিকা এবং ইউরোপের বাইরে বিশেষ করে ভারত, রাশিয়া এবং চীনের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোও ভালো করছে। সম্প্রতি টাইমস হায়ার এডুকেশন 'ব্রিকস অ্যান্ড ইমার্জিং ইকোনমি'স ইউনিভার্সিটি র‌্যাংকিংস ২০১৭' শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

এতে দেখা গেছে, উন্নয়নশীল বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে চীনেই সবচেয়ে বেশি সংখ্যক মানসম্পন্ন বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে।

তালিকার শীর্ষ ৩০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে চীনেরই আছে ৫২টি বিশ্ববিদ্যালয়।
চীনের ফুদান বিশ্ববিদ্যালয় এবার ১১ ধাপ এগিয়ে তলিকাটির ষষ্ঠ অবস্থানে চলে এসেছে। আর পিকিং ও সিংহুয়া বিশ্ববিদ্যালয় চতুর্থবারের মতো তালিকার প্রথম ও দ্বিতীয় স্থান দখল করে আছে।

ওদিকে ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স এবারই প্রথমবারের মতো তালিকার শীর্ষ ১৫টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে স্থান করে নিয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার পরিবেশ এবং গবেষণার গুণগত মান ও প্রভাব বেড়েছে।

উন্নয়নশীল বিশ্বের শীর্ষ ২২ বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হলো :
২২. ন্যাশনাল চেং কুং ইউনিভার্সিটি : এনসিকেইউ, তাইওয়ানের তাইনানে অবস্থিত। এর স্কোর ৩৯.৩।
২১. উহান ইউনিভার্সিটি : চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহানে অবস্থিত।

এটি ১২৩ বছরের পুরোনো। এর স্কোর ৪০.১।
২০. ন্যাশনাল চিয়াও তুং ইউনিভার্সিটি : তাইওয়ানের হিসিনচু-তে অবস্থিত। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের বেশ কয়েকজন গবেষক নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন। ১৯৮৬ সালে নোবেল পুরস্কারপ্রাপ্ত রসায়নবিদ ইউয়ান টি. লি এই প্রথিষ্ঠানেরই গবেষক ছিলেন। এর স্কোর ৪১.৩।
১৯. ন্যাশনাল রিসার্চ নিউক্লিয়ার ইউনিভার্সিটি : রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে অবস্থিত। ২০০০ সালের আগ পর্যন্ত এটি ছিল একটি পরমাণু গবেষণা কেন্দ্র। এর স্কোর ৪১.৫।
১৮. সাবানসি ইউনিভার্সিটি : ১৯৯৪ সালে প্রতিষ্ঠিত এই বিশ্ববিদ্যালয়টি তুরস্কের দ্বিতীয় সেরা বিশ্ববিদ্যালয়।
১৭. ন্যাশনাল সিং হুয়া ইউনিভার্সিটি : এটি বেইজিংয়ের সিংহুয়া বিশ্ববিদ্যালয় নয়। এর শিক্ষার্থী সংখ্যা ১২ হাজার। আর সার্বিক স্কোর ৪২.২। আগের বছর এর স্কোর ছিল ৪০.০২।
১৬. সেন্ট্রাল ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটি : ১৯৯১ সালে প্রতিষ্ঠিত হাঙ্গেরির রাজধানী বুদাপেস্ট ভিত্তিক এই বিশ্ববিদ্যালয় একটি ইংরেজি ভাষার বিশ্ববিদ্যালয়। এর শিক্ষার্থীদের ৭৬%-ই বিদেশি।
১৫. কোস ইউনিভার্সিটি : তুরস্কের ইস্তাম্বুলে অবস্থিত এই বিশ্ববিদ্যালয় দেশটির সেরা বিশ্ববিদ্যালয়। এর স্কোর ৪৪.২।
১৪. ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স : টাইমস হায়ার এডুকেশনের মতে এটি ভারতের শীর্ষ উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এর সার্বিক স্কোর ৪৫.৮। আর শিক্ষাদান স্কোর ৫০.১।
১৩. ইউনিভার্সিটি অফ সাও পাওলো : ব্রাজিলের শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয় এটি। এর স্কোর ৪৭.২। লাতিন আমেরিকার প্রথম সফল হৃদপিণ্ড প্রতিস্থাপনকারী ইউরিক্লাইডস ডে জেসুস জার্বিনসহ অনেক বিখ্যাত লোক এখানে পড়াশোনা করেছেন।
১২. মস্কো ইনস্টিটিউট অফ ফিজিক্স অ্যান্ড টেকনোলজি : এর ৫,৫৩৫ জন শিক্ষার্থী শিক্ষকদের কাছে নিবিড় মনোযোগ পান। কারণ গড়ে মাত্র প্রতি ৭.৮ জন শিক্ষার্থীর জন্য একজন করে শিক্ষক রয়েছে এতে।
১১. নানজিং ইউনিভার্সিটি : বর্তমান রূপে যাত্রা শুরু করে ১৯০২ সালে। কিন্তু এর শেকড় ২৫৮ বছরের পুরনো। চীনের সবচেয়ে পুরনো ও অভিজাত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর একটি এটি।
১০. ন্যাশনাল তাইওয়ান ইউনিভার্সিটি : তাইওয়ানের রাজধানী তাইপেই-তে অবস্থিত এই বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কোর ৪৯.৮।
৯. ঝেঝিয়াং ইউনিভার্সিটি : ১৮৯৭ সালে প্রতিষ্ঠিত এই বিশ্ববিদ্যালয় ইয়াংতজে ডেল্টা ইউনিভার্সিটি অ্যালায়েন্সের সদস্য। ৪৫ হাজার শিক্ষার্থীর এই বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কোর ৫১.৮।
৮. ইউনিভার্সিটি অফ উইটওয়াটারসর‌্যান্ড : দক্ষিণ আফ্রিকার এই বিশ্ববিদ্যালয়টি নেলসন ম্যান্ডেলার মাতৃশিক্ষায়তন। এখানেই তিনি আইন বিষয়ে পড়েন। এর স্কোর ৫২.৬।
৭. সাংহাই জিয়াও টং ইউনিভার্সিটি : এটি 'প্রাচ্যের এমআইটি' হিসেবে খ্যাত। এর স্কোর ৫২.৮।
৬. ফুদান ইউনিভার্সিটি : চীনের সেরা সংবাদিকতার বিদ্যালয়। চীনের অর্থনৈতিক রাজধানী ফুদানে অবস্থিত। এর সার্বিক স্কোর ৫২.৯।
৫. ইউনিভার্সিটি অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি অফ চায়না : সাংস্কৃতিক বিপ্লবের অংশ হিসেবে রাজধানী বেইজিং থেকে পূর্বাঞ্চলীয় শহর হেফেই-তে স্থানান্তরিত করা হয়। এটি বিজ্ঞানের বিষয়গুলোতে বিশেষায়িত শিক্ষা দান করে। এছাড়া মানবিক এবং ব্যবসায় শাখার বিষয়েও ডিগ্রি দেওয়া হয়। এর স্কোর ৫৩.৭।
৪. ইউনিভার্সিটি অফ কেপটাউন : ২৬ শিক্ষার্থীর এই বিশ্ববিদ্যালয় শুধু দক্ষিণ আফ্রিকা নয় বরং পুরো আফ্রিকার সেরা বিশ্ববিদ্যালয়। এর স্কোর ৫৫.২।
৩. লোমোনোসোভ মস্কো স্টেট ইউনিভার্সিটি : রাশিয়ার শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয় এটি। ১৭৫৫ সালে এটির যাত্রা শুরু হয়। এখন এর ৩৯টি অনুষদে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৪৭ হাজার। এর সার্বিক স্কোর ৫৮.৪।
২. সিংহুয়া ইউনিভার্সিটি : চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে অবস্থিত। এর সার্বিক স্কোর ৭৭.৯। গবেষণায় এর স্কোর ৮৯.৬।
১. পিংকিং ইউনিভার্সিটি : উন্নত বিশ্বের বাইরে সবার সেরা বিশ্ববিদ্যালয়। এর শিক্ষার্থী সংখ্যা ৩২ হাজার। এর সার্কি স্কোর ৭৮.৮।
সূত্র : বিজনেস ইনসাইডার

 


মন্তব্য