kalerkantho


লালু গিয়ে বসলেন মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে!( ভিডিও)

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৭:৩২



লালু গিয়ে বসলেন মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে!( ভিডিও)

যখন তখন সংবাদ শিরোনাম হতে  বিহারের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী লালু প্রসাদ যাদবের সম্ভবত তেমন কিছুই করতে হয় না। ভারতের বিহার রাজ্যের এই সাবেক মুখ্যমন্ত্রী অবশ্য বেশ জনপ্রিয়ও।

তাকে নিয়েই তো সেই মজার ছড়া জনপ্রিয়তা পায় যাতে বলা হয়, সিংগারায় যতদিন আলু থাকবে ততদিন বিহারে লালু থাকবে (যাব তাক সামোসামে আলু রাহেগা/তাব তাক বিহারমে লালু রাহেগা)।

তবে বাস্তব হলো এখন বিহারে লালু থাকলেও তিনি ক্ষমতায় নেই। তবে তার দল আছে- মানে তার দলের সমর্থনেই নীতিশ কুমার বিহারের কোয়ালিশন সরকারের মুখ্যমন্ত্রী হতে পেরেছেন। একটি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় লালু পাঁচ বছরের জন্য নির্বাচনে অংশ নিতে না পারার কারণে এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমান কোয়ালিশনে লালুর আরজেডি দলের সমর্থনই বড়।

তবে ক্ষমতার অংশীদার হলেও নিজে আনুষ্ঠানকিভাবে ক্ষমতা ভোগ করতে পারছেন না- এটা তিনি হয়তো মানতেই পারছেন না। আর সেই না পারা থেকেই সম্প্রতি করেছেন এক কাণ্ড। এক অনুষ্ঠানে তিনি গিয়ে বসেন মুখ্যমন্ত্রী নীতিশের জন্য নির্ধারিত আসনে। এসময় তাকে জানানো হয় যে এটা মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ার এখানে অন্য কেউ বসতে পারে না।

তখন লালু স্বাভাবজাত বেমক্কা কোনো সওয়াল না করেই উঠে গিয়ে ভিআইপি সারির অন্য এক চেয়ারে বসেন। এরপর মুখ্যমন্ত্রী এলে তার জ্যন নির্ধারিত  তাকে ওই চেয়ারে (লালু আগে যেটায় বসেছিলেন) নিয়ে বসানো হয়।  

কয়েক সপ্তাহ আগে রাজ্যে গুরু গোবিন্দ সিংয়ের ৩৫০তম জন্ম জয়ন্তীর এক অনুষ্ঠানে লালু উপস্থিত হয়ে তার আসন নিয়ে আপত্তি তোলেন। তিনি চান প্রধানমন্ত্য নরেন্দ্র মোদি ও মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমারের পাশে বসতে। তবে সেটা সম্ভব ছিল না।

এ বিষয়ে বিশ্লেষকরা বলছেন- ক্ষমতার আসন অন্য জিনিস। জনসভায়, প্রকাশ্যে লালুকে যতই ‘বড় ভাই’ সম্বোধন করুন না নীতিশ- কিন্তু তিনি তার বর্তমান আসন ভাগাভাগি করবেন না তার সঙ্গে। রাজনীতির সংস্কৃতি অনেক কঠিন।   এখানে ভিডিওতে দেখুন লালুর সেই চেয়ারকাণ্ড
 

  


মন্তব্য