kalerkantho


নারীর শরীরে শুধু নারীরই অধিকার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



নারীর শরীরে শুধু নারীরই অধিকার

একজন নারীর শরীরের উপর ‌একমাত্র তারই অধিকার রয়েছে। তাই নারীই সিদ্ধান্ত নেবেন তিনি কখন গর্ভবতী হবেন, নাকি গর্ভপাত করাবেন। এটা পুরোপুরি তার ইচ্ছার উপরেই নির্ভর করছে‌। শনিবার জিন্দাল গ্লোবাল বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি আলোচনা সভায় এ রকমই মন্তব্য করলেন ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি এ কে সিক্রি।  

তিনি বলেন, প্রজননের অধিকার নিয়ে যখন আমরা কথা বলি তখন নারীর অধিকার নিয়ে কথা বলতে ভুলে যাই। খুব অবাক হই, আমরা কীভাবে মানবিকতা ভুলতে বসেছি। একুশ শতকের দোরগোড়ায় যেখানে আমরা তথ্যপ্রযুক্তি থেকে শুরু করে মহাকাশেও পা বাড়িয়েছি, সেখানে আজও মহিলাদের অধিকার, তাদের ইচ্ছাকে বেঁধে রেখে দিয়েছি। নারীকে এখনও আমরা মানবিকতার চোখে দেখি না, এটা খুবই কঠোর বাস্তব। ‌ বিচারপতি সিক্রি আরও বলেন, ‌প্রজনন অধিকারের উপর নির্ভর করে মানুষের মর্যাদা। প্রজননের অধিকারের সঙ্গে মিশে আছে নারীর যৌন অধিকারও। সেখানেও তাকে একইভাবে বেঁধে দেওয়া হচ্ছে।

তার গর্ভের সন্তানের পিতা অবশ্যই হতে হবে তার স্বামীকে। মহিলার যৌন অধিকারের অর্থই হল তার পছন্দের পুরুষের সঙ্গে তিনি যৌন মিলন করবেন, তাকে তার স্বামী হতেই হবে, এমন কোনও মানে নেই। তিনি বলেন, একজন মহিলার ইচ্ছার ওপর নির্ভর করবে তার গর্ভবতী হওয়ার বিষয়টি। তিনি তার নিজের শরীরের সঙ্গে কী করবেন আর কী করবেন না তা সর্ম্পূণ নির্ভর করছে সেই নারীর ওপর। এটা নারীর শরীর, তাই অধিকারও তারই।

এদিনের আলোচনা সভায় এ কে সিক্রী বিশাখা গাইডলাইনস নিয়েও আলোচনা করেন। তিনি জানান, কর্মক্ষেত্রে মহিলাদের ওপর যৌন হেনস্থায় বিশাখা গাইডলাইনসকে আরও কঠোর করতে হবে। মহিলাদের ক্ষেত্রে চিন্তাভাবনাকে প্রসারিত করা দরকার। বলিউড ছবি 'পিঙ্ক‌' এর প্রসঙ্গ টেনে বিচারক সিক্রী বলেন, ‌যৌন মিলন ও প্রজননের ক্ষেত্রে নারীর নিজস্ব সিদ্ধান্ত সবচেয়ে জরুরী এবং এটা তার অধিকারও বটে।  


মন্তব্য