kalerkantho


নিউজিল্যান্ড উপকূলে এত তিমির মৃত্যুর কারণ কী?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৬:২৩



নিউজিল্যান্ড উপকূলে এত তিমির মৃত্যুর কারণ কী?

নিউজিল্যান্ডের সমুদ্র উপকূলে আটকে পড়া শতাধিক তিমিকে নিরাপদে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। প্রায় তিন শতাধিক তিমির মৃত্যুর পর শুক্রবার থেকে এখন পর্যন্ত ওই তিমিগুলোকে স্বেচ্ছাসেবীরা সমুদ্রে ছেড়ে দেন বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।


শত শত তিমির মৃত্যুর ঘটনায় বিস্ময়ের জন্ম দিয়েছে বিশেষজ্ঞদের মধ্যে। তবে এর নির্দিষ্ট কারণ খুঁজে পাওয়া যায়নি।
বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতে সমুদ্র উপকূল জুড়ে অসংখ্য মৃত তিমি পড়ে থাকতে দেখা গেছে। স্থানীয় এবং স্বেচ্ছাসেবীরা যত বেশি সম্ভব তিমিকে বাঁচানোর জন্য চেষ্টা করছেন।
তিমি মৃত্যুর কারণ নিয়ে সুষ্পষ্ট কোনও ধারণা দিতে না পারলেও বিশেষজ্ঞদের কেউ কেউ বলছেন, অনেক সময় একযোগে তিমিগুলো তীরের কাছে আসে কিন্তু পানি কমে গেলে আর সরে যাওয়ার সুযোগ না পেয়ে আটকে পড়ে।
তাদের মতে, আবার কখনও কখনও তিমি উপকূলের কাছে এসে কোন কারণে বিপদগ্রস্ত হলে সংকেত পাঠায়, আর সে সংকেত দেখে অন্য তিমিরা একযোগে এগিয়ে এসে আটকে পড়ে।
তবে এ ক্ষেত্রে এর কোনটা ঘটেছে নাকি অন্য কোনও কারণে এতো তিমির মৃত্যু হলো সেটি এখনো জানা যায়নি বলে বিবিসি বলছে।
সংরক্ষণ বিভাগের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সমুদ্র উপকুলে বৃহস্পতিবার রাতে আটকা পড়ে ওই তিমিগুলো। তবে শুক্রবার এগুলোকে উদ্ধারে অভিযান শুরু হয়।
উদ্ধার তৎপরতা দেরিতে শুরু হওয়ার কারণে এত তিমির প্রাণহানি ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সঙ্গে সঙ্গে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করা গেলে পানি কমার আগেই বহু তিমিকে সমুদ্রে পাঠানো সম্ভব হত বলে মনে করা হচ্ছে।


মন্তব্য