kalerkantho


৮৯ বছর বয়সেও রোজ করেন চারটি অস্ত্রোপচার!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০২:৩৯



৮৯ বছর বয়সেও রোজ করেন চারটি অস্ত্রোপচার!

শরীর, মন, স্মৃতিতে যখন সময়ের থাবা বসে, তখন চেনা মানুষটাও অনেকটাই অচেনা হয়ে যায়। কিন্তু সময়ের এই চেনা খেলাটা তাকে জব্দ করতে পারেনি।

উল্টো তিনিই জব্দ করে ছেড়েছেন সময়‌কে!‌ তাই তো ৮৯ বছর বয়সেও তিনি অস্ত্রোপচার করেন নিয়ম করে। তাও দিনে একটা নয়। চার চারটা!

‌এতক্ষণে নিশ্চয়ই বুঝে গিয়েছেন, তার পেশা কী?‌ ৮৯ এর আল্লা ইলিইনিচানা লেভুশকিনা পেশায় চিকিৎসক। আরও বিস্তারিত বললে, শল্যচিকিৎসক। রাশিয়ার মস্কোতে রায়াজান সিটি হাসপাতালে চাকরি করেন। ১৯৫০ সাল থেকে শল্যচিকিৎসক হিসেবে কাজ করছেন আল্লা। ৬৭ বছরের কর্মজীবন!‌ কিন্তু ক্লান্তি কখনও গ্রাস করেনি তাকে। উল্টে নিজের কাজটা হাসিমুখেই সারেন ৮৯ এর বৃদ্ধা। আল্লা, অবিবাহিত।

তবে নিঃসঙ্গ নন। ফ্ল্যাটে মানসিক ভারসাম্য হারানো এক ভাতিজা আর আটটি বিড়াল নিয়ে আল্লার সংসার।

চোখে মোটা কালো ফ্রেমের চশমা, কুঁচকে যাওয়া চামড়া। কিন্তু দৃষ্টি প্রখর। মনের জোর তার চেয়েও বেশি। আর এই জোরেই ৮৯ তেও অস্ত্রোপচার করার সাহস দেখান। তাও দিনে চারটি করে!‌ বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বয়সের কর্মরত শল্যচিকিৎসক এই মুহূর্তে আল্লা। কী করে পারেন এখনও কাজ করতে?‌ ক্লান্ত লাগে না?‌ আল্লা জবাব দেন চমৎকার, ‌আমি চাকরি করি। অন্য কাজও করি। অবসর নিয়ে কী করব?‌ ডাক্তারি করা শুধু তো পেশা নয়। জীবনকে বাঁচিয়ে রাখার কারিগর একজন ডাক্তার। একজন শল্যচিকিৎসক যদি অস্ত্রোপচারই না করল, তা হলে সে কী করবে?‌ বহু বছর আগে আমি এমন অনেককে বাঁচিয়েছি, যাদের অস্ত্রোপচার করতে কেউ চায়নি। আমি সাহস নিয়ে করেছিলাম। আর করেছিলাম বলেই তারা বেঁচে আছে। দীর্ঘদিন ধরে কাজ করার রহস্যটা কী?‌ আল্লার কথায়, ‌দীর্ঘদিন বেঁচে থাকার রসদ কী, আমি জানি না। তবে এটুকু জানি, আমি সব খাই। প্রাণ খুলে হাসি। কাঁদিও। কান্না চেপে রাখি না। কখনও।  

এমন করেই বাঁচতে হয়, আল্লা রোজ বোঝাচ্ছেন। শেখাচ্ছেন। আরও অনেক দিন সেই শিক্ষাই দিন, আমরা চাইতে পারি এটুকুই।

 


মন্তব্য