kalerkantho


বাংলা উচ্চারণের সংক্ষিপ্ত সূত্রাবলি (৬)

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৬:০৭



বাংলা উচ্চারণের সংক্ষিপ্ত সূত্রাবলি (৬)

বাংলা উচ্চারণের বিশেষ কিছু নিয়মকানুন রয়েছে। রেডিও-টিভিতে প্রচারিত খবর, আবৃত্তি বা শিল্পীর কণ্ঠে গান শুনতে গিয়ে আমরা বিষয়টি টের পাই।

বুঝতে পারি, আর দশজন থেকে তাদের উচ্চারণে ভিন্নতা রয়েছে। কিন্তু কিসে তাদের উচ্চারণে ভিন্নতা এনে দেয়, তা বুঝতে পারি না। 'বাংলা উচ্চারণের সংক্ষিপ্ত সূত্রাবলি' আত্মস্থ করার মধ্য দিয়ে আপনিও শুদ্ধ উচ্চারণে বাংলা বলা শিখে নিতে পারেন। আজ থাকছে ষষ্ঠ পর্ব।


এবার মধ্য অ-এর উচ্চারণ সম্পর্কে লক্ষ্য করা যাক। মধ্য অ-এর পর যদি ই, ঈ, উ, ঊ-কার, ঋ এবং য-ফলাযুক্ত ব্যঞ্জনবর্ণ বা ক্ষ থাকে, তাহলে তার আগে মধ্য অ-এর উচ্চারণ হবে ও-কারের মতো-প্রণতি (প্রোনোতি), বিরতি (বিরোতি), অগণিত (অগোনিত), সমভূমি (সমোভুমি), আলস্য (আলোশশো), সহস্র (সহোস্রো), যবক্ষার (যবোকখার) ইত্যাদি।

সৌজন্যে : ভাষা শহিদ কলেজ


মন্তব্য