kalerkantho


'সৌন্দর্যের অভাবই পণপ্রথার কারণ'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৮:৪৫



'সৌন্দর্যের অভাবই পণপ্রথার কারণ'

‘মহিলারা কুৎসিত দেখতে হলে কিংবা শারীরিক প্রতিবন্ধী হলে বিয়ে করতে সমস্যা থেকেই যায়। আর এই কারণেই পণ নিয়ে তাঁদের বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। ’ পণপ্রথার কারণ হিসেবে এই মন্তব্য করা হলো একটি পাঠ্যবইয়ে।

ভারতের মহারাষ্ট্রে দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র-ছাত্রীদের একটি পাঠ্যবইয়ে পণপ্রথা সম্পর্কিত একটি রচনায় এই ধরনের লেখা রয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে সৌন্দর্যের অভাবই পণপ্রথার কারণ।  

এমনকি, শারীরিক প্রতিবন্ধীদের ক্ষেত্রেও পণ দিয়ে বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয় বলে উল্লেখ রয়েছে ওই রচনায়।

যে বই পড়ে ছাত্রী-ছাত্রীরা তাঁদের ভবিষ্যৎ গড়বে, সেই বইতেই এ ধরনের মন্তব্য থাকায় শুরু হয়েছে বিতর্ক। মহিলাদের সম্পর্কে এমন অপমানজনক লেখার বিরুদ্ধে সমালোচনা ঝড়ও উঠেছে। যদিও এই বিষয়ে আপাতত কোনও মন্তব্য করেননি মহারাষ্ট্রের শিক্ষামন্ত্রী বিনোদ তাওড়ে।  

জানা গিয়েছে, এই বইটি প্রথম প্রকাশিত হয় ২০১৩'তে। পরে ২০১৬'তে পুণর্মুদ্রণ হয় বইটির।


সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন


মন্তব্য