kalerkantho


রত্নভাণ্ডারসহ প্রাচীন সমাধি আবিষ্কার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১১:১৬



রত্নভাণ্ডারসহ প্রাচীন সমাধি আবিষ্কার

দক্ষিণ জার্মানিতে রত্নের ভান্ডার সহ একটি প্রাচীন সমাধিক্ষেত্র আবিষ্কৃত হয়েছে। এতে স্বর্ণ, ব্রোঞ্জ এবং অ্যাম্বার এর তৈরি রত্নের ভাণ্ডার রয়েছে। দানিয়ুব নদীর প্রবাহ পথে অবস্থিত হওয়া সত্ত্বেও এটি গত ২৬০০ বছর ধরে অক্ষত রয়েছে।

সমাধিটি ৩০ থেকে ৪০ বছর বয়সে মারা যাওয়া একজন নারীর। তিনি সম্ভবত কেল্টিক সমাজের একজন অভিজাত বংশীয় সদস্য ছিলেন। সমাধিটি হিউনবার্গ নামের একটি পাহাড়ি দুর্গে অবস্থিত। যেটি নির্মাণ করা হয়েছিল ৫৮৩ খ্রিষ্টপূর্বাব্দে।
অধিকন্তু সমাধিটিতে সংরক্ষিত সমুদ্র শজারু এবং অ্যামোনাইট পাওয়া গেছে যা থেকে ধারণা করা হচ্ছে ওই নারী সম্ভবত এবং একজন ধর্মযাজক ছিলেন।

ওই নারীর সমাধিটির চারপাশের বেশ কয়েকটি সমাধিতে গত কয়েক বছরে লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। নব আবিষ্কৃত এই সমাধিটি নির্মিত হয়েছিল ৬ষ্ঠ শতকের প্রথমার্ধে। এর রত্নভাণ্ডারটিও অক্ষত রয়েছে।

হিউনবার্গ নামের এই পাহাড়ি দুর্গটি দানিয়ুব নদীর তীরে কেল্টিকদের একটি নগর রাষ্ট্রেরই অংশ। এই নগর রাষ্ট্রটি স্থাপিত হয়েছিল ষষ্ঠ খ্রিষ্টপূর্বাব্দে। বিখ্যাত গ্রিক দার্শনিক হেরোডোটাস দানিয়ুব নদীর ইতিহাস লেখার সময় (৪৮৪-৪২৫ খ্রি. পূ.) এর উল্লেখ করেছেন।

১৯৫০ সালে গবেষকরা এতে খনন কাজ শুর করেন। ২০০৫ সালে পুনরায় খনন শুরু হয়। এরপর ২০১০ সালে শেষ দফায় খনন শুরু হয়। সম্প্রতি রত্নভাণ্ডার সহ ওই সমাধিটি আবিষ্কৃত হয়।

সমাধিটির রত্নভাণ্ডারের মধ্যে রয়েছে অ্যাম্বারের তৈরি জটিল গয়না, স্বর্ণ এবং ব্রোঞ্জ; পশমী এবং সুতী বস্ত্রের গাদা; শুকরের শিংয়ের তৈরি অলঙ্কার এবং ব্রোঞ্জ জিঙ্গেল বেল যা ঘোড়ার বক্ষে লাগানো হত। এছাড়াও রয়েছে খোদাই করা কাঠের গয়না, কালো পাথর থেকে খোদাই করা ব্রেসলেট এবং ব্রোঞ্জ ও চামড়ার তৈরি একটি বেল্ট।
সূত্র : লাইভ সায়েন্স


মন্তব্য