kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ব্যাঙের মন্দির, যেখানে শুধু ব্যাঙের পূজা করা হয়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ অক্টোবর, ২০১৬ ১৭:১৩



ব্যাঙের মন্দির, যেখানে শুধু ব্যাঙের পূজা করা হয়

হিন্দু শাস্ত্রে জীবজন্তুদের বিশেষ জায়গা রয়েছে। বছরের বিভিন্ন সময়ে ভক্তিভরে নিষ্ঠার সঙ্গে পুজো করা হয় সেইসব পশুকে।

কিন্তু কখনও কি ব্যাঙের পূজার কথা শুনেছেন ? না শুনে থাকলে অবাক হওয়ার কিছু নেই। নিষ্ঠার সঙ্গে পূজা করা হয় ব্যাঙও। উর্বরতা, প্রাচুর্য ও সাফল্যের প্রতীক হিসেবে পূজিত হয় এই উভচর প্রাণী।

কিন্তু কোথায় হয় এই পূজা ?  ভারতে একমাত্র ব্যাঙের মন্দির (ফ্রগ টেম্পল) রয়েছে উত্তরপ্রদেশের লখিমপুর খেরি জেলায়। কথিত আছে, রাজা ভক্ত সিংয়ের জীবনে সৌভাগ্য সূচনায় এই ব্যাঙের বিশেষ অবদান ছিল। এই প্রাণীর আশীর্বাদ ধন্য বলে মনে করা হয় তাঁকে। সন্তানের সুস্বাস্থ্য ও ধনসম্পদের অধিকারী হন তিনি। সেজন্য নির্মাণ করা হয় এই ফ্রগ টেম্পল।

এলাকায় এটি মান্ডুক মন্দির হিসেবে পরিচিত। ২০০ বছরের পুরনো মন্দির দর্শন করলে জীবনে সাফল্য মিলবে, এই বিশ্বাসে প্রতি বছর এখানে বহু ভক্ত সমাগম হয়। শিবরাত্রি, শ্রাবণ মাসের প্রতি সোমবার ও তারপর কালীপূজার সময় সবচেয়ে বেশি ভিড় হয় এই মন্দিরে।

১০০ ফুট উচ্চতার এই মন্দির বিখ্যাত তার স্থাপত্য নিদর্শনের জন্যও। মন্দিরের ভেতরের দেওয়ালে হিন্দু দেবদেবীদের ছবি ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। মন্দিরের বাইরের দেওয়ালেও রয়েছে ফুলের সুন্দর নকশা। একটি বিশালাকার ব্যাঙের মূর্তির উপর রয়েছে মন্দিরের গর্ভগৃহ।

রাজা ভক্ত সিংহের বাবা ছিলেন রাজা হরদেও সিং। যিনি নিমরানা রাজবংশের বংশধর। তাঁদের বর্তমান প্রজন্মের সদস্যদের কথায়, “এই মন্দির বংশ পরম্পরায় তাঁদের সৌভাগ্য সূচনা করে আসছে।   উবর্তার প্রতীক হিসেবে এখানের ব্যাঙের পূজা করা হয়। একবার এই মন্দির দর্শন করলে সন্তান লাভ করা যাবে এবং সন্তানের সুস্বাস্থ্য বজায় থাকবে বলেও বিশ্বাস করেন অনেকে।  


মন্তব্য