kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


দুবাইয়ে নির্মিতব্য বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভবনটি দেখতে যেমন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ অক্টোবর, ২০১৬ ১৩:০৪



দুবাইয়ে নির্মিতব্য বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভবনটি দেখতে যেমন

বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভবনটির নির্মাণ কাজ চলছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে। ১০ অক্টোবর দেশটির প্রধান মন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন রাশিদ আল মাকতুম ভবনটির নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন।

ভবনটির নাম রাখা হয়েছে, টাওয়ার অ্যাট দুবাই ক্রিক হার্বার।
৩,০৪৫ ফুট উঁচু এই ভবনটি বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভবনের বর্তমান রেকর্ডধারী ভবন বুর্জ আল খলিফাকেও (২৭১৭ ফুট উঁচু) ছাড়িয়ে যাবে। এই ভবনটি বুর্জ আল খলিফার চেয়েও ৩২৮ ফুট বেশি উঁচু হবে।
ভবনটির নকশা করেছেন বিখ্যাত স্পানিশ-সুইস স্থপতি সান্টিয়াগো কালাট্রাভা। যিনি নিউইয়র্কের বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্রের পরিবহন হাব এর নকশা করেছেন। এছাড়া ব্রাজিলের রিওডি জেনেরিও-তে মিউজিয়াম অফ টুমরোর নকশাও করেছেন তিনি।

দুবাই শহরের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত দুবাই ক্রিকের পাশেই ভবনটি নির্মিত হচ্ছে। দুবাই আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে মাত্র ছয় মাইল দূরে অবস্থিত ভবনটির নির্মাণস্থল। ভবনটি নির্মাণে খরচ পড়বে ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।
ভবনটি নকশায় দেখা গেছে, এটি দেখতে মিনারের মতো পেঁচানো যার গায়ে জড়ানো আছে ভারি তারের জাল। ইনহ্যাবিট্যাট এর মতে ভবনটি দুবাই কিক্র হার্বার ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পেরই একটি অংশ। ডেভেলপার কম্পানি ইমাআর প্রোপার্টিস এর অধীনে পরিচালিত একটি রিয়েল এস্টেট প্রকল্প দুবাই ক্রিক হার্বার ডেভেলপমেন্ট। এই প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে দুবাই শহরের কেন্দ্রস্থলের আকার দ্বিগুন হবে।

বুর্জ আল খলিফার মতোই নতুন এই ভবনটিতেও বিলাসবহুল আবাসিক অ্যাপার্টমেন্ট এবং বাণিজ্যিক স্যুট থাকবে। পর্যটক এবং ব্যবসায়ীদের ব্যবহারের জন্য এগুলোর বরাদ্দ দেওয়া হবে। প্রাচীন ব্যাবিলনের ঝুলন্ত উদ্যানের স্মারক স্বরুপ ভবনটিতে বেশ কয়েকটি বাগান চত্বর তৈরি করা হবে। এছাড়া এর চারদিকে থাকবে পর্যবেক্ষণ ডেক। যেগুলোতে দাঁড়িয়ে শহরের আকাশের ৩৬০ ডিগ্রি কোনের দৃশ্য দেখা যাবে।
ভবনটির নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য ইমাআর প্রপার্টিস ১২টি উইন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বা বায়ু প্রকৌশল এবং ভূকম্পন সংক্রান্ত টেস্ট করিয়েছে। ঝড় ও ভূমিকম্প সহ নানা পরিস্থিতিতে ভবনটির স্থায়ীত্ব নিশ্চিত করতেই পরীক্ষাগুলো করানো হয়।
২০২০ সালের মধ্যে ভবনটির নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে।
সূত্র: বিজনেস ইনসাইডার


মন্তব্য