kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আলাস্কার সবচেয়ে বড় তেলের খনির সন্ধান

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ অক্টোবর, ২০১৬ ১০:৪৪



আলাস্কার সবচেয়ে বড় তেলের খনির সন্ধান

কায়েলুস এনার্জি এমন একটি তেলের খনি আবিষ্কার করেছে যেটি সম্ভবত আলাস্কার ইতিহাসে সবচেয়ে বড় তেলের খনি।

মঙ্গলবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ওই স্বাধীন অনুসন্ধান এবং উৎপাদন কম্পানিটি বলেছে, আলাস্কায় আবিষ্কৃত নতুন তেলের খনিটি থেকে প্রতিদিন সর্বোচ্চ ২ লাখ ব্যারেল তেল উত্তোলন সম্ভব।

এই তেল হবে খুবই হালকা এবং উচ্চ পরিবহনযোগ্য। খনিটিতে সর্বমোট ৬ বিলিয়ন থেকে ১০ বিলিয়ন ব্যারেল তেলের মজুদ রয়েছে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। এর মধ্যে ২.৪ বিলিয়ন ব্যারেল তেল পুনরুদ্ধারযোগ্য।

আলাস্কার উত্তর প্রান্তে স্মিথ বে এর অগভীর জলে খনিটি অবস্থিত।

কায়েলুস এনার্জি বলেছে, আবিষ্কারটি যদি পুরোপুরি সত্য হয় তাহলে এই তেলের খনিটি কনোকো ফিলিপস পরিচালিত আলপাইন ইউনিটের চেয়েও বেশি উর্বর হবে। কায়েলুস এনার্জি আলাস্কার বৃহত্তম তেল উৎপাদনকারী। কম্পানিটি ২০০০ সালে আলাস্কায় তেল উৎপাদন শুরু করে। ২০০৭ সাল থেকে কম্পানিটি প্রতিদিন ১ লাখ ৩৯ হাজার ব্যারেল তেল উৎপাদন করছে।

কায়েলুস এখনো তেলের খনিটির অস্তিত্ব সম্পর্কে পুরোপুরি নিশ্চিত হতে কূপ খননের মাধ্যমে পরীক্ষা চালায়নি। আর তৃতীয় পক্ষের কোনো প্রকৌশল কম্পানিও এ নিয়ে কোনো গবেষণা করেনি।

এই আবিষ্কার যদি পুরোপুরি সত্য হয় তাহলে এই তেলের খনি ইতিমধ্যেই ফুলে ফেঁপে ওঠা যুক্তরাষ্ট্রের বিশাল তেলের ভাণ্ডারকে আরো সমৃদ্ধ করবে। যুক্তরাষ্ট্রের তেলের ভাণ্ডারই সম্প্রতি বিশ্ববাজারে তেলের দাম কমিয়ে রাখার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে।

প্রসঙ্গত, সেপ্টেম্বরে সৌদি আরব বিশ্বের সবচেয়ে বেশি তেল উৎপাদনকারী দেশ হিসেবে নিজের শীর্ষ স্থানটি পুনরুদ্ধার করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি তেল কম্পানি খরচ কমাতে তাদের তেল শোধনাগারগুলো বন্ধ করে দিলে সৌদি আরব নিজের শীর্ষ স্থানটি ফেরত পায়।
সূত্র : বিজনেস ইনসাইডার


মন্তব্য