kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


'ম্যারাথনের প্রশিক্ষণ আমাকে মোটা বানিয়েছে'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ অক্টোবর, ২০১৬ ১৯:১৩



'ম্যারাথনের প্রশিক্ষণ আমাকে মোটা বানিয়েছে'

ছবি : প্রশিক্ষণের শুরুতে (বামে) আর পরে (ডানে) জ্যাকুইলিন

জীবনের প্রথম ম্যারাথনের জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করলেন জ্যাকুইলিন এলবাজ। ভাবলেন, এই প্রশিক্ষ নিতে গিয়ে স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটবে।

বেশ কিছু ওজন কমাতে পারবেন।

কিন্তু বিধি বাম! ২০১৪ সালে নিউ ইয়র্কে প্রথম ম্যারাথনের জন্য দৌড়ালেন তিনি। যখন ফিনিশিং লাইন স্পর্শ করলেন তখন তার ওজন প্রশিক্ষণ শুরুর সময় থেকে ১৫ পাউন্ড বেশি। চার মাস আগে থেকে ট্রেনিং শুরু হয়েছিল তার। ফ্যাশন দুনিয়ায় কাজ করেন তিনি।

দৌড়ের জন্য প্রশিক্ষণ নিতে থাকলেন নিয়মিত। সময়ের সঙ্গে খেয়াল করলেন, ইয়োগার প্যান্টগুলো ক্রমশই আঁটসাঁট হয়ে যাচ্ছে। স্পষ্ট বুঝলেন, দেহের ওজন বাড়ছে। দৌড়ের জন্য তিনি নিয়মিত যেসব ঢিলেঢালা পোশাক পরেন, তাই পরেছিলেন।

মিডটাউনের ২৫ বছর বয়সী এই নারী বলেন, আমি বুঝতে পারছিলাম যে ওজন বেড়েই যাচ্ছে। প্রশিক্ষণ শেষ পর্যন্ত তা বেড়েই গেছে।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ম্যরাথনবিদরা অনুভব করেন যে, প্রশিক্ষণের কারণে ওজন কিছুটা কমে যাচ্ছে। কিন্তু এটা তাদের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য যারা নিয়মিত এ কাজে চর্চা চালিয়ে যান। একেবারে নতুনদের জন্য সমস্যা হয়ে যায়। হঠাৎ করেই ২৬.২ মাইল দৌড়ানোর ট্রেনিংয়ে হিতে বিপরীত হয়।

প্রতি মৌসুমেই দৌড়ের প্রশিক্ষণ নিতে গিয়ে অনেকেরই ওজন বেড়ে যায়। এ তথ্য দেন নিউ ইয়র্ক রেস কোচ ড্যাফনি ইয়াং। এর কিছু কারণও তিনি তুলে ধরেন। অতিরিক্ত খাওয়া একটি বড় কারণ। প্রশিক্ষণ নিতে গিয়ে তাদের ক্ষুধা বেড়ে যায়। কিন্তু সে তুলনায় ক্যালোরি পোড়ে না। সূত্র : ফক্স নিউজ

 


মন্তব্য