kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আপনি কি ডিভোর্স-প্রেমী?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ অক্টোবর, ২০১৬ ১৬:২৮



আপনি কি ডিভোর্স-প্রেমী?

সম্প্রতি অ্যাঞ্জেলিনা জোলি ও ব্র্যাড পিটের বিয়ে বিচ্ছেদ নিয়ে বহু মানুষের আলোচনা ও সমালোচনা হচ্ছে। আর এ বিষয়টি নিয়ে তাদের ব্যক্তিগত জীবনের নানা বিষয় উঠে আসছে।

এসব বিষয় নিয়ে মানুষের আলোচনারও যেন শেষ নেই। যদিও এ বিষয়টি সঠিক কিংবা ভুল তা নিয়ে কেউই মাথা ঘামাচ্ছেন না। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে টেলিগ্রাফ।
খবরে প্রকাশ পেয়েছে ব্র্যাঞ্জেলিনা জোলির বিয়ে বিচ্ছেদের অসংখ্য কারণ। অন্য নারীর সঙ্গ, নেশাদ্রব্য গ্রহণ কিংবা হাতাহাতি-মারামারি ইত্যাদি সব বিষয়েই তথ্য উঠে আসছে মিডিয়ায়। তার ভিত্তিতে বহুদিন ধরেই উৎসাহী মানুষদের আগ্রহ এখন সেদিকে।   এ বিষয়টি ঠিক হলো নাকি ঠিক হলো না, এসব নিয়েও মন্তব্য করছেন বহু মানুষ। আর এ বিষয়ে আলোচনা করতে গিয়ে আমরা ভুলেই যাচ্ছি যে, তারা অন্যদের মতোই রক্তমাংসের মানুষ। তাদের ব্যক্তিগত বিষয় বলেও কিছু রয়েছে।
কিছুদিন আগেই টিভি প্রেজেন্টার জো বল তার স্বামী ডিজে নরম্যান কুকের সঙ্গে বিয়ে বিচ্ছেদ ঘটান। আর এর কারণ হিসেবে উঠে এসেছে তিনি তাকে ‘একঘেয়ে’ বলে মনে করছেন। আর এ বিষয়টিও অনেকের প্রিয় বিষয়ে পরিণত হয়েছে।
আমরা কী কারণে অন্যের ডিভোর্স নিয়ে অতিরিক্ত উৎসাহী? এ বিষয়টি বিশ্লেষণে দেখা যাবে আমরা মোটেই তারা তারকা বলে উৎসাহী নই। আমাদের উৎসাহের কারণ মূলত আমরাই। অধিকাংশ মানুষই তাদের বড় কিছু মনে করেন। আর এ কারণেই তাদের নিয়ে এ আগ্রহ। এছাড়া রয়েছে অন্যের ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে আমাদের আগ্রহ। অনেকেই নিজের প্রতিচ্ছবি দেখতে পান তাদের মাঝে। অনেকটা যেন আয়নায় দেখা।
ক্রমে বেড়ে যাচ্ছে ডিভোর্স। আর এ বিষয়টি নিয়ে অনেকেই চিন্তিত। দেশে-বিদেশে সর্বত্র পরিবার যেন টিকছেই না।
যুক্তরাজ্যের এক পরিসংখ্যানে দেখা যায় ৩৪ শতাংশ বিয়ে ২০ বছর পার হওয়ার আগেই বিচ্ছেদ হয়ে যাচ্ছে। এছাড়া ২০১৩ সালের পরিসংখ্যানে প্রকাশ, প্রতি ঘণ্টায় ১৩টি করে বিয়ে বিচ্ছেদ হচ্ছে। এক্ষেত্রে দেখা যায় ৪০ থেকে ৪৪ বছর বয়সীদের মাঝে ডিভোর্সের হার সবচেয়ে বেশি।


মন্তব্য