kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আমেরিকান নিনজা ওয়ারিয়রস শোর অজানা ১৮টি বিষয়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৩:১৯



আমেরিকান নিনজা ওয়ারিয়রস শোর অজানা ১৮টি বিষয়

“আমেরিকান নিনজা ওয়ারিয়র” সত্যি সত্যিই জনপ্রিয় বলে প্রমাণিত হয়েছে। এর শোতে প্রতিযোগীদেরকে অস্বাভাবিক সব বাধা এড়ানোর কৌশলের প্রশিক্ষণ নিতে, জটিল এবং দুর্গম ভূখণ্ড অতিক্রমের কৌশল রপ্ত করতে দেখা যাচ্ছে।


অনেক গেম শোর মতো, “আমেরিকান নিনজা ওয়ারিয়র” এর পেছনের দৃশ্যও স্ক্রিনে আপনি যা দেখেন তার চেয়ে অনেক বেশি বিস্ময়কর। একজন আমেরিকান নিনজা ওয়ারিয়র হওয়ার সকল অপ্রত্যাশিত এবং অস্পষ্ট অংশগুলোর উত্তরগুলো রইল এখানে।
বিজনেস ইনসাইডার সম্প্রতি আমেরিকান নিনজা ওয়ারিয়র শোর সিজন ৮ এর দুই প্রতিযোগী আকিভা নেউম্যান অ্যান্ড লোগান ব্রডবেন্ট এর সঙ্গে কথা বলে এই শোটিতে থাকার অপ্রত্যাশিত এবং অস্পষ্ট দিকগুলো নিয়ে কথা বলেছেন।
১. আবেদন করা খুবই সহজ
অন্যান্য টেলিভিশন রিয়েলিটি শোর মতোই এতে সহজেই আবেদন করা যায়। অনলাইনে একটি ফর্ম পুরণ করে আবদেন কার যায়। আবেদরকারীকে নিজের একটি ভিডিও প্রেরণ করতে হয়।
২. তারা শুধু একগুচ্ছ ক্রীড়াবিদ চান না
ভিডিওর মাধ্যমে আসলে একজন প্রতিযোগী দৈহিকভাবে কতটা চিত্তাকর্ষক শুধু তাই বুঝতে চাওয়া হয় না, বরং মানুষ হিসেবেও তিনি কতটা আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্বের অধিকারী তাও জানতে চাওয়া হয়।
৩. শো শুরু হওয়ার মাত্র দুই সপ্তাহ আগে আপনাকে জানানো হবে
লোগান ব্রডবেন্ট জানান, সিজন ৮এ ৭৫ হাজার লোককে আবেদন করতে দেখে আমি হতাশ হয়ে পড়িছিলাম। কিন্তু প্রতিযোগিতার দু্ই সপ্তাহ আগে একজন প্রযোজক আমাকে ফোনে কল করে এতে অংশগ্রহণের আবেদন জানান। আর ওই সংক্ষিপ্ত সময়ের মধ্যেই তাকে শোটিতে অংশগ্রহণের জন্য প্রস্তুতি নিতে হয়।
৪. তারা আপনার জীবনকে যথাযথভাবে তুলে ধরতে সত্যিই যত্নবান
নিজের জীবন-যাত্রার বিবরণ দিয়ে পাঠানো আপনার ভিডিওটি হয়তো মাত্র দুই মিনিট দৈর্ঘ্যের। কিন্তু প্রযোজকরা তা যথাযথভাবে ফুটিয়ে তুলতে অনেক কষ্টই স্বীকার করেন।
৫. আপনার পাঠানো ভিডিওতে নিজের জীবনের অনেক কিছুই হয়তো আপনি বাদ দিয়েছেন। শোটির প্রযোজকরাও আপনি নিজের সম্পর্কে যা প্রকাশ করতে চান না তা গোপন রাখার ব্যাপারে যত্নবান। তারা শুধু সবচেয়ে আবেদনময়ী অংশটুকু ফুটিয়ে তোলার ওপরই গুরুত্ব দেন।
৬. কোনো প্রতিযোগীর জীবন-যাত্রার যে চিত্র ফুটিয়ে তোলা হয় তার বেশিরভাগই বাস্তব নয়। বরং অভিনয়ের মাধ্যমে উপস্থাপন করা হয়। যেমন নিউম্যান প্রতিদিন সকাল ৬টায় ঘুম থেকে ওঠেন। অথচ বিষয়টি তিনি দিনের ১০টা বা ১১টার সময় অভিনয় করে দেখাচ্ছেন।
৭. “আমেরিকান নিনজা ওয়ারিয়র” শোতে যোগ দেওয়ার জন্য এর সেটে আপনাকে নিজের খরচেই যেতে হবে এবং হোটেলে থাকার খরচও আপনার নিজেকেই বহন করতে হবে।
৮. নিজের পোশাক-আশাক নিজেকেই যোগাড় করে নিয়ে যেতে হবে এবং নিজের মেকআপও নিজেকেই করতে হবে।
৯. কোনো কিছু সম্পন্ন করার চেষ্টা করার আগে আপনাকে দিক নির্দেশনা দেওয়া হবে। একই কাজের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন কেউ একজন আপনাকে এই নির্দেশনা দেবেন। তবে আপনি নিজেও ভিন্ন কোনো কৌশল ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া কী কার যাবেনা তাও বলে দেওয়া হবে।
১০. ১৩০ জন লোক পুরো বাধা অতিক্রম পর্বটি চালান। কিন্তু মাত্র ২০ জন বা আরো কম সংখ্যক লোককেই শুধু টেলিভিশনে দেখা যায়।
১১. এনবিসি টেলিভিশন তাদের শোটি শুরু হওয়ার আগে স্বশরীরে আবদেনকারী প্রতিযোগীদেরকে গিনিপিগ হিসেবে ব্যবহার করে বাধা অতিক্রম পর্বের একটি পরীক্ষা চালান। আর ওই পরীক্ষার মাধ্যমেই ২০ জন উপযোগী প্রতিযোগীকে আসল শোর জন্য বাছাই করা হয়।
১২. নিচে পড়ে যাওয়ার চেয়ে বিব্রত হওয়ার বিষয়টি আতঙ্কজনক। ব্রডবেন্ট এবং নিউম্যান বলেন, তারা বাধা অতিক্রম পর্বটিকে নিরাপত্তার দিক থেকে খুব বেশি আতঙ্কজনক দেখেন নি। তারা নিশ্চিত ছিলেন তারা নিরাপদ থাকবেন। তবে ভুল হিসেব-নিকেশ করে টেলিভিশনের পর্দায় নিজেকে বিব্রতকরভাবে উপস্থাপন করার বিষয়টিই সবচেয়ে বাজে অভিজ্ঞতা।
১৩. কেনো তার শো দেখার জন্য ১০ জন দর্শক নিয়ে আসতে পারেন। এদের মধ্য থেকে তিনজন আবার ওই প্রতিযোগীর সঙ্গে অংশগ্রহণও করতে পারেন।
১৪. প্রতিযোগীতার প্রথম পর্বে ভালো করলে পরবর্তী রাউন্ডে অংশগ্রহণ করতে পারবেন কিনা তা জানার জন্য পরদিন ভোর ৫টা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। প্রথম পর্বের শীর্ষ ৩০ প্রতিযোগী পরের দিনের চুড়ান্ত পর্বে অংশগ্রহণ করতে পারেন। তবে যারা বাদ পড়েন তারা আরো আগেই তা জানতে পারেন। নিউম্যান চুড়ান্ত পর্বের জন্য যোগ্য না হওযায় রাত ২.৩০ মিনিটেই বাড়িতে ফিরে আসেন।
১৫. অপেক্ষা করার সময়টুকুতে আপনি শোর মঞ্চের পেছনে থাকা ট্র্যাম্পোলিনে অনুশীলন করতে পারবেন।
১৬. প্রতিযোগীতার মূল পর্বটি অনুষ্ঠিত হয় দ্বিতীয় দিনে।
১৭. “আমেরিকান নিনজা ওয়ারিয়র” এর একটি পর্ব মাত্র এক রাতেই চিত্রায়িত হয়। সন্ধ্যা ৬টায় শুটিং শুরু হয়ে শেষ হতে ভোর পাঁচটা বেজে যায়।
১৮. এমন একটি জটিল শো অসাধারণ সহজ প্রক্রিয়ায় সামনে এগোয়।
সূত্র: বিজনেস ইনসাইডার


মন্তব্য