kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ফের টাইটানে আপাতদৃষ্টিতে অসম্ভব মেঘ শনাক্ত করেছে নাসা!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৬:২৪



ফের টাইটানে আপাতদৃষ্টিতে অসম্ভব মেঘ শনাক্ত করেছে নাসা!

শনির চাঁদ হিসেবে খ্যাত টাইটানকে সবচেয়ে বেশি পৃথিবীসদৃশ বিশ্ব বলে ডাকা হয়। এ পর্যন্ত পৃথিবীসদৃশ যত গ্রহ-উপগ্রহ পাওয়া গেছে তার মধ্যে এটিই আকার-আকৃতি ও প্রকৃতির দিক থেকে পৃথিবীর সবচেয়ে কাছাকাছি।


সৌর জগতের মধ্যে পৃথিবীর পর এটিই একমাত্র দ্বিতীয় জায়গা যেখানে ভূতলে স্থির তরল পদার্থের অস্তিত্ব রয়েছে। এর ভূতলে রয়েছে, তরল মিথেন প্রবাহের সাগর যা থেকে বিশাল সব গিরিখাত সৃষ্টি হয়েছে। আর এর যে বরফাবৃত জগত রয়েছে তাতে ভিনগ্রহী প্রাণের অস্তিত্ব থাকাও অসম্ভব নয়।
এখন গবেষকরা ধারণা করছেন, তারা টাইটানের পৃথিবীসদৃশ বৈশিষ্টের তালিকায় আরেকটি বৈশিষ্ট যোগ করতে পারবেন। টাইটানে আপাতদৃষ্টিতে অসম্ভব একটি মেঘমালা সৃষ্টি সম্ভব হয়েছে পৃথিবীর মতোই আবহাওয়াগত প্রক্রিয়ার মাধ্যমে।
বেশ কয়েক দশক আগে নাসার ভয়েজার ওয়ান মহাকাশযান এই মেঘমালা প্রথমবার শনাক্ত করে। ওই মেঘ কার্বন এবং নাইট্রোজেন ভিত্তিক উপাদান ডিসায়ানোঅ্যাসেটিলিন (সি৪এন২) দিয়ে তৈরি হয়েছে।
সি৪এন২ সে রাসায়নিক মিশ্রনের অংশ যা টাইটানকে কমলা রঙ্গের কুয়াশায় ঢেকে রেখেছে।
সম্প্রতি নাসার ক্যাসিনি মিশন ওই অদ্ভুত মেঘমালা দ্বিতীয়বারের মতো শনাক্ত করেছে।
টাইটানে মেঘের অস্তিত্ব অস্বাভাবিক কিছু নয়। মিথেন গ্যাস শীতল এবং ঘন হয়ে আসার মাধ্যমে এই মেঘের সৃষ্টি হয়। যেভাবে পৃথিবীতে পানি থেকে মেঘ সৃষ্টি হয়।
সূত্র: দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট


মন্তব্য