kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


অস্ট্রেলিয়ার রহস্যময় উলুরু প্রস্তরস্তম্ভে আরোহনে হুঁশিয়ারি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১১:০০



অস্ট্রেলিয়ার রহস্যময় উলুরু প্রস্তরস্তম্ভে আরোহনে হুঁশিয়ারি

বেয়াড়া পর্যটকরা যখন ভুল করে বিপদে পড়েন মাশুলটা গুনতে হয় কাকে?
তিন পর্যটককে নিয়ে বিপাকে পড়েছে অস্ট্রেলিয়া। এরা স্থানীয়দের নিষেধ সত্ত্বেও দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় রহস্যময় উলুরু প্রস্তরস্তম্ভে আরোহনের চেষ্টাকালে আটকে পড়েন।

তাদের উদ্ধারে ১১ ঘন্টার এক ব্যয়বহুল উদ্ধার অভিযান চালানো হয়।
ওই তিন অস্ট্রেলিয় পর্যটক, যাদের প্রত্যেকের বয়স ২৩, সোমবার ওই প্রবাদপ্রতীম বেলে পাথরের স্তম্ভটিতে আরোহনের চেষ্টা করেন। এসময় তারা পথ হারিয়ে এর একটি ফাটলে আটকে পড়েন।
তাদের উদ্ধারের জন্য একটি বিশেষজ্ঞ দল সোমবার মধ্যরাতে তাদের কাছে পৌঁছায়। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল ৩.৩০ এর মধ্যে তাদের নিচে নামিয়ে আনা হয়।
এসময় অসংখ্য অস্ট্রেলিয় নাগরিক সামাজিক গণমাধ্যমে ওই পর্যটকদের তিরস্কার ও নিন্দা করেন। স্থানীয় আনানগু সম্প্রদায়ের লোকরা তাদেরকে নিষেধ করা সত্ত্বেও তারা উলুরু পাথর স্তম্ভে আরোহনের চেষ্টা চালান।
সামাজিক গণমাধ্যমে তাদেরকে “নির্বোধ” হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়। অনেকে আবার তাদেরকে উলুরুর ফাটলের ভেতরেই ফেলে আসার পরামর্শও দেন।
উলুরু পাথর স্তম্ভে আরোহন নিষিদ্ধ নয়। হাজার হাজার পর্যটক প্রতিবছর এর চুড়ায় আরোহন করেন। কিন্তু দর্শণার্থীদেরকে এর নির্দিষ্ট কিছু পথ এড়িয়ে চলার জন্য সতর্কতা সঙ্কেত দেওয়া রয়েছে। এছাড়া এর পবিত্র তাৎপর্যের প্রতিও সম্মান প্রদর্শনের দিক নির্দেশনা দেওয়া আছে। কিন্তু ওই তিন পর্যটক এসবের কোনো তোয়াক্কা না করেই নিজেদের খেয়াল খুশি মতো স্তম্ভটিতে আরোহন করতে যান।
এদিকে উলুরু পাথর স্তম্ভে পর্যটকদের আরোহনের বিষয়ে পুরোনো বিতর্কটি পুনরায় শুরু হয়েছে। উত্তরাঞ্চলের মুখ্য মন্ত্রী অ্যাডাম গিলস উলুরুতে পর্যটকদের আরোহন করতে দিলে অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হওয়ার কথা বলার পর বিতর্কটি শুরু হয়। তিনি উলুরুকে ফ্রান্সের আইফেল টাওয়ার বা সিডনি হারবার ব্রিজের সঙ্গে তুলনা করেন।
কিন্তু উলুরুতে আরোহন করতে গিয়ে বেশ কিছু আরোহী বিপজ্জনক অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হন। গত বছর জুনে এক তাইওয়ানি পর্যটকও এতে আরোহন করতে গিয়ে একইভাবে এর একটি ফাটলে আটকে পড়েন। ২৪ ঘন্টা পর তাকে উদ্ধার করা হয়। দুই সঙ্গীকে ছেড়ে বিকল্প পথে নিচে নামতে গিয়ে তিনি একটি ফাটলে আটকে পড়েন।
গত মাসে ভয়েজেস ইন্ডিজেনাস ট্যুরিজম অস্ট্রেলিয়া ৬০০ বছরের পুরোনো উলুরু পাথর স্তম্ভের অবিশ্বাস্য কিছু ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করে। এই প্রথম কোনো চালকবিহীন বিমানকে উলুরু-কাটা জুটা ন্যাশনাল পার্কের ভেতরে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়।
সূত্র: ফক্স নিউজ


মন্তব্য