kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ফেসবুকে কীভাবে আকৃষ্ট করবেন কাঙ্ক্ষিত মানুষটিকে?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৩:২৫



ফেসবুকে কীভাবে আকৃষ্ট করবেন কাঙ্ক্ষিত মানুষটিকে?

দিনে দিনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আমাদের দৈনন্দিন জীবনের অনুসঙ্গ হয়ে উঠছে। সোশাল মিডিয়ার ওপর নির্ভর করে গড়ে উঠছে অনেক কমিউনিটি, ব্যবসা-বাণিজ্য এমনকী প্রেম-সংসার।

কীভাবে ফেসবুকে জয় করবেন মনের মানুষের হৃদয়? এখানে দেওয়া হলো কিছু টিপস। তবে আপনি যদি কারও সাথে অন্যায় করতে চান তবে এই টিপস আপনার জন্য নয়। নিজেকে দ্রুত পরিবর্তন করুন।

১. লেখার বদলে ছবির মাধ্যমে নিজেকে ব্যক্ত করার চেষ্টা করুন। নিছক স্টেটাসের তুলনায় ছবি সব সময় অধিক সংখ্যক মানুষের নজর কাড়ে। ফলে আপনার ভালোবাসার মানুষের চোখে পড়াও সহজতর হয়। কাজেই কোনো রেস্তোরাঁয় খেতে গেলে, সেই নিয়ে স্টেটাস দেওয়ার পরিবর্তে খাবার ভর্তি প্লেটের ছবি পোস্ট করুন, লোকের চোখে পড়বে বেশি।

২. আপনার কর্মস্থল, পেশা বা কোন পদে আপনি রয়েছেন, নিজের প্রোফাইলে তা স্পষ্টভাবে উল্লেখ করুন। প্রেমের বাজারে ভালো চাকরির দাম অস্বীকার করার উপায় নেই। তা ছাড়া আপনার চাকরি যদি তেমন আহামরি কিছু নাও হয়, তাহলেও নিজের পেশার সুস্পষ্ট উল্লেখ করুন। এটা মানুষ হিসেবে আপনার সততাকে প্রমাণ করে।

৩. আপনি কি মারাত্মক সুদর্শন, কিংবা মোহময়ী সুন্দরী? তা যদি না হন, তাহলে শুধু প্রোফাইল পিক এর জোরে কারোর মন জয় করার সম্ভাবনা কম। কাজেই মন দিন স্টেটাসের ওপর। আপনি যা ভালোবাসেন, যে বিষয়ে আপনি আত্মবিশ্বাসী, স্টেটাস দিন সেই বিষয়ের ওপরই। কবিতা পড়তে যদি ভালো না বাসেন, তাহলে আলটপকা কবিতার লাইন কোট করে লোক ঠকিয়ে লাভ নেই। ক্রিকেট ভালোবাসলে সেটা নিয়েই স্টেটাস দিন। সৎ থাকুন, তাতেই কাজ হবে।

৪. স্মার্টনেস অবশ্যই জরুরি, কিন্তু ওভারস্মার্ট হতে গিয়ে গোটা ব্যাপারটা গুলিয়ে ফেলবেন না। কোনো মেয়ের সঙ্গে চ্যাট করার সময়ে 'হাই হটি' মার্কা কথা দিয়ে আলাপ জমাতে গেলে অধিকাংশ মেয়েই তাতে বিরক্ত বোধ করে। তার চেয়ে শুধু 'হাই' ই কথা শুরু করার পক্ষে যথেষ্ট।

৫. নিজের বাড়ির কাছে-পিঠের মেয়ে বা ছেলেদের সঙ্গে আলাপ জমানোর চেষ্টা করুন। তাতে সোশাল মিডিয়ার গণ্ডির বাইরে গিয়ে বাস্তবে দেখাশোনার কাজটা সহজ হয়। মেয়েটিও সুরক্ষিত বোধ করে।

৬. ফোন নম্বর জোগাড় করার ক্ষেত্রে 'তুমি কি হোয়াটসঅ্যাপে আছ?' মার্কা প্রশ্ন পুরনো হয়ে গেছে। আপনিও ওই ধরনের প্রশ্ন করে নিজেকে সস্তা করবেন না। তার চেয়ে সরাসরি বলুন, 'তোমার সঙ্গে একটু কথা বলতে চাই। ফোন নম্বরটা পেতে পারি?' সে কী উত্তর দিচ্ছে, তার ভিত্তিতে আপনার প্রতি তার মনোভাবটা বোঝাও সহজ হবে।

৭. কাউকে আপনার ভালো লাগতেই পারে, কিন্তু তা বলে তার বিরক্তির কারণ হয়ে উঠবেন না। আপনার তরফ থেকে দু-একটা 'হাই', 'হ্যালো' তে যদি সাড়া না পান, তাহলে বুঝতে হবে, আপনার আশা কম। সে ক্ষেত্রে দিবারাত্র তাকে মেসেজ করে তার মনোভাব আপনি বদলাতে পারবেন না। উল্টে আপনার ব্লকড হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে।

৮. শেষে একটাই কথা, কাউকে ভালো লাগলে আলাপ একটু এগোনোর পরই আপনার মনোভাব তাকে বুঝতে দিন। আলাপের দুই দিনের মাথায় সরাসরি প্রোপোজ করাটা বাড়াবাড়ি, কিন্তু তাকে যে আপনার ভালো লেগেছে, সে সম্পর্কে হালকা আভাস অন্তত দিন। না হলে একবার যদি সে আপনাকে নিছক বন্ধু বলে ভাবতে শুরু করে, তাহলে 'বন্ধু' থেকে 'প্রেমিক' হয়ে ওঠা কিন্তু প্রায় অসাধ্যসাধনের শামিল হবে। কাজেই প্রথম থেকেই আভাস দিন যে, আপনার মনে কী চলছে।


মন্তব্য