kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বিমানে অপরিচিতের নিঃস্বার্থ সহযোগিতা ইন্টারনেটে ভাইরাল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৪:২৪



বিমানে অপরিচিতের নিঃস্বার্থ সহযোগিতা ইন্টারনেটে ভাইরাল

বিমানটি তখন আকাশে। সেখানে এক গর্ভবতী নারী উঠেছেন তার কোলের শিশুকে নিয়ে।

বাচ্চাটি মনে হয় বেশ জ্বালাচ্ছিল। তখন এক অচেনা মানুষ যা করলেন তাতে সবার চোখে পানি এসে গেল।

আমেরিকার জর্জিয়ার অ্যাঙ্গেলা বায়ার্ড মিনেয়াপলিস থেকে আটলান্টা যাচ্ছিলেন ওই বিমানে চেপে। সেখানে ওই মানুষটির ছবি তুলে সোশাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে, ওই পুরুষ বাচ্চাটিকে কোলে নিয়ে ঘুম পাড়ানোর চেষ্টা করছেন। কারণ গর্ভবতী ওই নারী তার বাচ্চাটিকে একা সামলাতে পারছিলেন না। ওই নারীকে একটু আরাম দিতেই এগিয়ে আসেন ভদ্রলোক।

বায়ার্ড আরো জানাচ্ছেন, ওই ভদ্রলোক নারীকে বলেন তিনিও এক বাবা। তার কষ্ট বুঝতে পারছেন। তাকে একটু আরাম দিতে চান। নিঃস্বার্থভাবে ভদ্রলোক মহিলার দারুণ উপকার করলেন। এ দৃশ্য দেখে তার চোখে পানি এসে যায়।

ফেসবুকে ছবিটি দেওয়ার পর ২০ হাজার শেয়ার হয়ে গেছে। এতে লাইক পড়েছে ১ লাখ ৪০ হাজারের বেশি। পোস্ট দেওয়ার ১৯ ঘণ্টার মধ্যে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়।

তবে কোনো ফ্লাইটে এমন আবেগময় কারণে যাত্রীর অশ্রু বিসর্জন এই প্রথম নয়। এ বছরের মে মাসেও এক মা তার গল্প শেয়ার করেছেন। তার ক্রন্দনরত মেয়েকে থামাতে এগিয়ে আসেন এক ভদ্রলোক। বাড়ি থেকে ৫ হাজার মাইল দূরের গন্তব্যে যাচ্ছিলেন ওই নারী। পরে ভদ্রলোক তার পাশের সিটে বসে নিজের আইপ্যাড থেকে নাতি-নাতনিদের ছবি দেখাতে থাকেন বাচ্চাকে। অনেক ধৈর্য নিয়ে বাচ্চাটিকে শান্ত করেন তিনি।

ছয় ঘণ্টা পর ফ্লাইট মাটিতে নামে। ভদ্রলোকটি কেবল গুডবাই বলেই উধাও হয়ে যান। পরে বাড়িতে ফিরে মায়ের কাছে অশ্রুসজল চোখে এ গল্প বলেন নারী।
সূত্র : হাফিংটন পোস্ট

 


মন্তব্য