kalerkantho

শুক্রবার । ২০ জানুয়ারি ২০১৭ । ৭ মাঘ ১৪২৩। ২১ রবিউস সানি ১৪৩৮।


৪ বিলাসী রেল ভ্রমণ যা দেবে ১৯ শতকের রাজকীয় ভাব

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ মার্চ, ২০১৬ ১৬:৪৭



৪ বিলাসী রেল ভ্রমণ যা দেবে ১৯ শতকের রাজকীয় ভাব

অটোমোবাইলের চরম অগ্রগতির আগে মানুষ রেলেই ভ্রমণ করতেন। পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই রেল যোগাযোগাব্যবস্থাকে এগিয়ে নিয়েছে। আগের সময়ের সেই ট্রেন, ভেতরে কাঠের চকচকে বিলাসী নকশা ইত্যাদি রেলভ্রমণকে করতো দারুণ আকর্ষণীয়। আধু যুগে বুলেট গতির ট্রেনের জয়-জয়কার হলেও আগের সেই ট্রেনের আবেদন কিন্তু এতটুকু কমেনি। এখানে জেনে নিন এমন ৪টি রেলভ্রমণের কথা। এই ট্রেনে উঠলে আগের আমলের রাজকীয় ভাবটা ঠিকই উপলব্ধি করবেন।

১. অরিয়েন্ট এক্সপ্রেস : এই এক্সপ্রেসটি সেবা দেয় ইউরোপ, এশিয়া এবং দক্ষিণ আমেরিকায়। ১৮৮৩ সাল থেকে এটি রাজকীয় ও ধনী ব্যক্তিদের সেবা দিতো। ব্রিটেনের মধ্যে দিন-রাতের ভ্রমণ ছিল এটি। অরিয়েন্ট এক্সপ্রেসের সবচেয়ে জনপ্রিয় প্যাকেজ ৬ দিন ও ৫ রাতের ভ্রমণ। এটি লন্ডন থেকে ভেনিসের ভ্রমণকাল। এতে আরামে ঘুমানো ও সময় কাটানো ব্যবস্থা রয়েছে। এর জানালা দিয়ে প্রকৃতির অপার সৌন্দর্য উপভোগ করা যায়। চব্বিশ ঘণ্টার বাটলার সার্ভিস মেলে এতে।

২. মহারাজাস এক্সপ্রেস : এতে উঠলে রাজাদের প্রাসাদ, পুরনো ধর্মী উপাসনালয় এবং 'পবিত্র শহরের' দেখা মিলবে। নতুন এই বিলাসী রেলভ্রমণ ভারতে চালু হয় ২০১০ সালে। টানা ৭ রাত ও ৬ দিনের ভ্রমণ দিল্লি থেকে কলকাতা পর্যন্ত আসে। এতে চড়ে দেখা যাবে আগ্রার তাজমহল, পবিত্র শহর বেনারসি, খাজুরাহোর ধর্মীয় উপাসনালয় এবং গঙ্গা নদী। এটাই প্রথম বিলাসবহুল প্যান-ইন্ডিয়ান ট্রেন। ২০টি ডিলাক্স কেবিন, ১৮টি জুনিয়র স্যুইটস মিলিয়ে ৮৪ জন চড়তে পারেন এহতে। এই ট্রেনের কিছু কেবিন বিশ্বের সবচেয়ে বিলাসী কেবিনের মধ্যে পড়ে। আপ্যায়নের দারুণ ব্যবস্থা তো রয়েছেই।

৩. ব্লু ট্রেন : বহু প্রাকৃতিক বিস্ময়ে পূর্ণ আফ্রিকা যা উপভোগ করা যায় ব্লু ট্রেনে চড়ে। ২৭ ঘণ্টার এই ভ্রমণ শুরু হয় দক্ষিণ আফ্রিকার প্রিটোরিয়া থেকে। শেষ হয় রাজধানী কেপ টাউনে। কিম্বার্লিতে যাত্রাবিরতি দেয়। ১৯২৩ সাল থেকে আফ্রিকায় সেবা দেয় রেলটি। দেশটির বিভিন্ন রুট হয়ে ভ্রমণ করে। বিলাসী সিঙ্গেল বা ডাবল বেড, গোসলের টাব, লাউঞ্জ চেয়ার ইত্যাদি ব্যবস্থা তো রয়েছেই। এই ট্রেনে আরেকটি প্যাকেজ রয়েছে যা ৪ রাতের ভ্রমণ। এটি প্রিটোরিয়া থেকে ডারবান রুট ধরে যায়। গলফাররা এই ভ্রমণটি দারুণ পছন্দ করেন। কারণ এটি জিম্বালির ১৮ কোর্স গলফ কোর্স হয়ে যায় যা দক্ষিণ আফ্রিকার সেরাগুলোর একটি।

৪. রয়্যাল কানাডিয়ান প্যাসিফিক : রেল ভ্রমণ যে কেবল ট্রেনে চড়ে যাওয়ার বিষয় নয়, তার প্রমাণ রেখেছে এই সার্ভিসটি। পশ্চিম কানাডার বুক চিড়ে এই ট্রেন যায়। এই ভ্রমণে মাছ ধরা, বন ক্যাম্পিংসহ গলফ খেলারও ব্যবস্থা রয়েছে। ৬ দিন ও ৫ রাতের রুকিস সার্ভিস দারুণ উপভোগ্য যা আলবার্টার ক্যালগেরিতে শেষ হয়। আলবার্টার রিসোর্ট শহর ব্যানফ, লেক লুইজ, দ্য ওয়েস্টর্ন গ্লেসিয়ার এবং পাহাড়ের ওপর থেকে হেলিকপ্টার চড়ার ব্যবস্থার তুলনাই চলে না। সূত্র : বিজনেস ইনসাইডার

 


মন্তব্য