kalerkantho

26th march banner

বহু মানুষেরই অস্বাভাবিক যৌন আচরণের অভ্যাস রয়েছে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ মার্চ, ২০১৬ ১৩:২৩



বহু মানুষেরই অস্বাভাবিক যৌন আচরণের অভ্যাস রয়েছে

সাধারণ মানুষের মাঝে এমন কিছু যৌন আচরণ রয়েছে, যা মনোবিদের দৃষ্টিতে স্বাভাবিক নয়। সাম্প্রতিক এক গবেষণায় বহু মানুষের যৌন আচরণের অনুসন্ধানে এ বিষয়টি উঠে এসেছে। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ফক্স নিউজ।

বহু মানুষই স্বাভাবিক যৌন আচরণের বাইরে এমন সব আচরণ করেন যা অস্বাভাবিকতার পর্যায়ে পড়ে। এ আচরণগুলোর কোনো কোনোটিকে বিশেষজ্ঞরা মানসিক সমস্যা হিসেবেই মনে করেন। সম্প্রতি কানাডার কুইবেকে এক অনুসন্ধানে বিষয়টি ধরা পড়ে।

গবেষকরা এ বিষয়টি অনুসন্ধানে বেশ কয়েকটি যৌন আচরণ চিহ্নিত করেন, যেগুলো অস্বাভাবিক বিষয় হিসেবে ধরা হয়। এসব অস্বাভাবিক যৌন আচরণ কখনো কখনো আইনের লঙ্ঘন হিসেবেও গণ্য হয়। এ আচরণগুলোর মধ্যে আটটি বিষয় নিয়ে অনুসন্ধান চালানো হয়। এগুলো হলো : বিকৃত পর্নোগ্রাফি, বিপরীত লিঙ্গের পোশাক পরিধান, অপরিচিতের ওপর গোয়েন্দাগিরি, অপরিচিতকে জননাঙ্গ প্রদর্শন, অপরিচিতের সামনে যৌন বিকৃতি, শিশু পর্নোগ্রাফি, মর্ষকাম ও কাউকে আঘাত করে বিকৃত যৌন আনন্দ।

গবেষকরা জানান, জরিপে অংশগ্রহণকারী ব্যক্তিদের মাঝে অর্ধেকই ওপরের আটটি যৌন বিকৃতির মাঝে কোনো একটির প্রতি আকর্ষণ অনুভব করেন। এ ছাড়া তাদের এক-তৃতীয়াংশই জানান, তারা জীবনে কমপক্ষে একবার হলেও এসব আচরণে লিপ্ত হয়েছেন।

এ বিষয়ে গবেষণাটির জন্য মোট ১০৪০ জন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির ওপর অনুসন্ধান করা হয়। এতে তারা তাদের যৌন বিষয়ের বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করেন। এসব তথ্যের ভিত্তিতে প্রস্তুতকৃত গবেষণা প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয় দ্য জার্নাল অব সেক্সুয়াল রিসার্চে।

এক-তৃতীয়াংশের চেয়ে বেশি ব্যক্তি জানান তারা গোপনে অন্য মানুষের যৌনতা দেখতে আগ্রহী। অন্যদিকে ২৬ শতাংশ জানান তারা বিকৃত পর্নোগ্রাফি ও অপরিচিতের সামনে বিকৃতিতে আগ্রহী। অন্যদিকে ১৯ শতাংশ জানান, তারা মর্ষকামে আগ্রহী।

এ বিষয়ে দ্য মিথ অব সেক্স অ্যাডিকশনের লেখক ডেভিড লে বলেন, মানুষের যৌনতা বিষয়ে গবেষণাটি সামাজিক ও মানসিক পূর্বানুমানের যথার্থতা অনুসন্ধান করে। তিনি আরও বলেন, বহু বছর ধরেই মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে বলা হত যে, স্বমেহন ও সমকামিতা অস্বাভাবিক বিষয়। একইভাবে এখনও বহু প্রচলিত যৌন আচরণকে অস্বাভাবিক বলে ধরা হয়। যদিও এসব বিষয়ের চর্চা করে বহু মানুষই।


মন্তব্য