kalerkantho


দাঁতের ব্যথা, ধরা পড়ল বিরল ক্যান্সার!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ মার্চ, ২০১৬ ১৪:৪৭



দাঁতের ব্যথা, ধরা পড়ল বিরল ক্যান্সার!

এক ব্রিটিশ টিনএজারের দাঁতে ব্যথা শুরু হলো। তিনি ভাবলেন এটা বুঝি আক্কেল দাঁত ওঠার ব্যথা।

কিন্তু শিগগিরই ঘটনা অন্য কিছুর জানান দিল। এটা পেডিয়াট্রিক ক্যান্সারের এক বিরল ও আগ্রাসী অবস্থা যার লক্ষণ দাঁত ব্যথার মাধ্যমে প্রকাশ পেল।

নাদিয়া হবসের বয়স ১৮ বছর। দাঁতের ব্যথায় চোয়াল চেয়ে ধরে রাখতেন প্রায়ই। হঠাৎ লক্ষ করলেন, চোয়ালের হাড় বরাবর অংশে ছোট আকারের গুটি হয়েছে। চিকিৎসকরা মাম্পস এবং গ্ল্যানডুলার ফিভারের পরীক্ষা করলেন। দেখতে দেখতে চোয়ালের পিণ্ডটির আকার দ্বিগুণ হয়ে গেল। সেই সঙ্গে অসহনীয় ব্যথা বোধ হতে লাগল তার।

মা র‌্যাচেল হবস খুব দ্রুত আরো অন্যান্য পরীক্ষার উদ্যোগ নিলেন।

বড় হাসপাতালে নিয়ে গেলেন। এমআরআই পরীক্ষায় তার চিবুকে একটা টিউমার ধরা পড়ল যা ক্যন্সারে আক্রান্ত। এক বলা হয় রাবডোমাইয়োসারকোমা।

ইংল্যান্ডের ইক্সিটার কলেজের শিক্ষার্থী নাদিয়া। তিনি জানান, টিউমারের আকার আমাদের সবাইকে অবাক করে দিয়েছে। এটা যে এত বড় হতে পারে তা আমার ধারণার বাইরে ছিল।

ইতিমধ্যে সাত চক্রের কেমোথেরাপি নিচ্ছেন নাদিয়া। আরো দুটো থেরাপি বাকি আছে। টিউমারের আকার ৭৫ শতাংশ কমে গিয়েছে। নাদিয়ার আশা খুব শিগগিরই সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠবেন তিনি। টানা ছয় সপ্তাহের রেডিওথেরাপিতে টিউমারটি পুরোপুরি দূর হয়ে যাবে।

তবে নাদিয়া তার মায়ের দ্রুত সিদ্ধান্তের জন্যে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। কারণ মা দ্রুততার সঙ্গে হাসপাতালে না নিয়ে হয়তো অবস্থা আরো বেগতিক হতো।

মা র‌্যাচেল বলেন, যেকোনো মূল্যে নাদিয়ার জীবন বাঁচানো আমার একমাত্র কাজ। আমি কেবল ওর কি হয়েছে তা জানার জন্যে উগগ্রীব ছিলাম। বর্তমানে এই টিনএজার ক্যান্সার ট্রাস্টের জন্যে ফান্ড তোলার কাজ করবে।
সূত্র : ফক্স নিউজ

 


মন্তব্য