kalerkantho


চোখ সুস্থ রাখার ১০টি ব্যায়াম

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ মার্চ, ২০১৬ ১৭:০৪



চোখ সুস্থ রাখার ১০টি ব্যায়াম

আপনাকে কি দিনরাত কম্পিউটারের সামনে বসতে হয়? দিনের শেষে ক্লান্ত চোখদুটো কি ভারি হয়ে আসে? শুরু হয়ে যায় মাথার যন্ত্রণা? তাহলে এই প্রতিবেদন আপনার জন্য। খুব অল্প সময় নিজের চোখের জন্য দিন, আর শরীরের অতি মূল্যবান এই অঙ্গকে সুস্থ রাখুন। এই সময়ের প্রতিবেদন অবলম্বনে।

১. দুই মিনিট ধরে অবিরাম চোখের পাতা ফেলুন
এককথায় বলা চলে, ২ মিনিট টানা চোখ পিটপিট করুন। এই ব্যায়াম আপনার চোখের রক্তসরবরাহ বাড়াতে সাহায্য করবে। টানা অনেকক্ষণ কম্পিউটারের সামনে কাজ করলে, কিছুক্ষণ পর পরই এই ব্যায়াম করলে সুফল পাবেন।

২. মাথা স্থির রেখে দুই পাশে তাকান
মাথা না নাড়িয়ে একবার ডানদিকে ও একবার বাঁদিকে তাকান। এভাবে ১০ বার করুন।

৩. চোখ বন্ধ রেখে মণি দুটো ওপর-নিচ করুন
মাথাটা স্থির রেখে চোখ দুটো বন্ধ করুন। এবার ধীরে ধীরে চোখের মণি দুটো একবার ওপরে ও একবার নিচে করুন। এভাবে করুন ১০ বার।

৪. চোখের মণি দুটি ঘোরান
মাথাটা স্থির রেখে চোখের মণি দুটি একবার ঘড়ির কাঁটার দিকে ১০ বার ঘোরান। এরপর একইভাবে ঘড়ির কাঁটার বিপরীতে মণি দুটি ঘোরান আরও ১০ বার।

৫. চোখের পাতার ওপরের অংশে সামান্য চাপ
চোখের দুটে পাতার ওপর আঙুল দিয়ে হাল্কা চাপ সৃষ্টি করুন কয়েক সেকেন্ড। তারপর ছেড়ে দিয়ে একইভাবে আরও ৫ বার করুন। এতে ইন্ট্রাকিউলার ফ্লুইডের সরবরাহ বাড়বে।

৬. চোখের মণি দিয়ে বিভিন্ন আকার আঁকুন
মাথাটা স্থির রেখে চোখের মণি ঘুরিয়ে ত্রিভুজ, চতুর্ভুজ ও অন্যান্য জ্যামিতিক আকার আঁকুন।

৭. চোখের পাতা বন্ধ করে তার ওপরে হাল্কা চাপ দিন
কয়েক মিনিট চোখের পাতা বন্ধ রেখে, তার ওপর আঙুল দিয়ে হাল্কা চাপ দিন। তারপর হাত সরিয়ে রিল্যাক্স করুন। এভাবে করুন ৫-৭ বার। এতে চোখের রক্ত সরবরাহ বাড়বে এবং চোখের পেশি সক্রিয় থাকবে।

৮. চোখ স্থির রেখে মাথাটা ঘোরান
সামনে কোনো একটি জিনিসের দিকে স্থিরভাবে তাকিয়ে ঘড়ির কাঁটার দিকে ১০ বার মাথাটা ঘোরান। একইভাবে ঘড়ির কাঁটার দিকে মাথা ঘোরান আরও ১০ বার।

৯. কাছের ও দূরের জিনিসের দিকে তাকান
খুব কাছের কোনো কিছুর দিকে টানা কয়েক সেকেন্ড তাকিয়ে থাকুন। এরপরই দূরের কোনো জিনিসের দিকে চোখ ফিরিয়ে সেটি দেখুন কয়েক সেকেন্ড। এভাবে করুন ৫ বার।

১০. চোখ বন্ধ করে রিল্যাক্স করুন
কিছুক্ষণ চোখটা বন্ধ রেখে রিল্যাক্স করুন। আপনার চোখের পেশির ওপর যে অতিরিক্ত চাপ পড়েছে, তা এভাবে কিছুটা কমবে।


মন্তব্য