kalerkantho


অপচয় বন্ধ করতে অবিক্রিত খাবার পুনরায় ব্যবহারের আইন করছে ইটালি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ মার্চ, ২০১৬ ১৫:৫৩



অপচয় বন্ধ করতে অবিক্রিত খাবার পুনরায় ব্যবহারের আইন করছে ইটালি

রেস্টুরেন্টে বা সুপারমার্কেটি সাধারণত খাবার নষ্ট হয়ে গেলে তা ফেলে দেওয়াই নিয়ম ইটালির। তবে এতে খাবারের প্রচুর অপচয় হয়।

সম্প্রতি ইটালি সরকার এ অপচয় রোধ করে খাবারগুলো পুনরায় ব্যবহার করার জন্য আইন সংশোধন করছে। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে হাফিংটন পোস্ট।
খাবার অপচয়ের বিরুদ্ধে ইটালির এ অবস্থান ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ইটালিকে এক্ষেত্রে দ্বিতীয় অবস্থান এনে দিল। এর আগে একই ধরনের আইন করে ফ্রান্স। ফ্রান্সের সেই আইনেও খাবারের ডেট পার হওয়ার পর তা ফেলে দেওয়া নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এ আইনের ব্যত্যয় ঘটলে বিপুল অংকের জরিমানাও করার বিধান রাখা হয়েছে যার অংক ৩,৭৫০ ইউরো।
ইটালির নতুন এ বিলে খাবারের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে গেলে তা চ্যারিটির কাছে দিয়ে দেওয়ার বিধান রাখা হয়েছে। এতে সে প্রতিষ্ঠানের ট্যাক্সও ছাড় দেওয়ার প্রস্তাব রয়েছে।
ইটালির কৃষিমন্ত্রী জানান, দেশটিতে প্রতি বছর ১২ বিলিয়ন ইউরোর খাবার নষ্ট হয়। এ খাবারগুলোকেই ফেলে না দিয়ে সদ্ব্যবহার করার জন্য আইন করা হচ্ছে।
কৃষিমন্ত্রী মাউরিজিও মার্টিনা জানান, ইটালি খাবার অপচয় রোধ করার যে পদ্ধতিগুলোর আশ্রয় নিয়েছে, তা ইতোমধ্যেই কার্যকর হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, ২০১৬ সালে ১.১ মিলিয়ন টন বাড়তি খাবার রক্ষা করা সম্ভব হবে।
প্রতি বছর মানুষের ব্যবহার্য খাবারের এক-তৃতীয়াংশ নষ্ট বা অপচয় হয়ে যায় বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের দেশগুলোতে এর পরিমাণ প্রায় ১১০ মিলিয়ন টন। অন্যদিকে বিশ্বের প্রায় ৭৯৫ মিলিয়ন মানুষ খাদ্যাভাবে কষ্ট পায়।
সম্প্রতি খাবার নষ্ট হওয়ার এ প্রবণতা দূর করার জন্য জাতিসংঘ উদ্যোগ নিয়েছে। ২০১৫ সালে মিলন ও রোমে খাবারের বাড়তি অংশ প্যাকেট করে দান করে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। একইভাবে বিভিন্ন সুপারমার্কেটও তাদের বাড়তি খাবার দান করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।


মন্তব্য