kalerkantho


ফরাসি সিরিজে সফট পর্ন, বিবিসি প্রাইমটাইমে তুলকালাম

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ মার্চ, ২০১৬ ১১:০৯



ফরাসি সিরিজে সফট পর্ন, বিবিসি প্রাইমটাইমে তুলকালাম

প্রাইমটাইম সিরিয়ালে যৌন দৃশ্যের ছড়াছড়ি। তথাকথিত রক্ষণশীল ভাবমূর্তি শিকেয় তুলে পর্ন প্রদর্শনে দর্শক টানতে মরিয়া ব্রিটিশ মিডিয়া। ক্ষুব্ধ ব্রিটিশ পার্লামেন্ট ও পারিবারিক অধিকার সংগঠন। ২.১ কোটি পাউন্ড খরচ করে দর্শক মনোরঞ্জনে তৈরি হচ্ছে মেগা সিরিয়াল ভার্সাই। বিবিসি-র প্রাইম টাইমে প্রচারের জন্য তৈরি সিরিয়ালটিকে দর্শকদের জন্য মুখরোচক ভোজ হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে প্রচারে। কিন্তু সিরিয়ালের বহু দৃশ্যে নগ্নতার বহুল প্রদর্শনী নিয়ে বিতর্কের তুফান ঘনিয়েছে। ব্রিটিশ পার্লামেন্টের বেশ কিছু সদস্য এবং পারিবারিক অধিকার রক্ষাকারী সংগঠনগুলি মিডিয়ার সমালোচনায় মুখর হয়েছে। তাঁদের দাবি, দর্শক টানতে সাবেক ফরাসি পোশাকের ঘেরাটোপে এই সিরিয়ালে পর্নের রমরমা ঠাঁই পেয়েছে।

সিরিয়ালের কাহিনী গড়ে উঠেছে ফ্রেঞ্চ সম্রাট চতুর্দশ লুইয়ের ব্যাভিচারী জীবনযাপন কেন্দ্র করে। সমালোচকদের দাবি, ব্রিটিশ টিভি-র ইতিহাসে প্রাইমটাইমে এমন অশ্লীল সিরিয়াল এর আগে কখনও প্রদর্শিত হয়নি। সিরিয়ালের প্রথম এপিসোডের প্রধান বৈশিষ্ট সমপ্রেমীদের যৌন জীবন, ক্রস-ড্রেসিংয়ে তুখোড় যুবরাজ এবং বামনাকৃতি পুরুষের সঙ্গে যৌন সঙ্গমের নেশায় বুঁদ এক রানি।

সম্রাটের ভূমিকায় অভিনয় করছেন ব্রিটিশ অভিনেতা জর্জ ব্ল্যাগডেন। একটি দৃশ্যে রক্ষিতার জোড়া থাইয়ের মাঝে তাঁকে মুখ ডুবিয়ে দিতে দেখা গিয়েছে। ফ্রান্সে সিরিয়ালটি প্রচারের সঙ্গে সঙ্গে বিতর্কের ঝড় উঠেছে। তবে নিন্দুকদের মূল আপত্তি সিরিয়ালটি ইংরেজি ভাষায় করা নিয়ে।

ফ্রান্সের ঐতিহাসিক কাহিনী দেখতে গিয়ে সাবটাইটেলের ব্যবহার তাঁদের কাছে পীড়াদায়ক মনে হয়েছে। এছাড়া কাবিনীতে দেশের বর্ণময় ঐতিহাসিক চরিত্রের ব্যাপ্তি সঠিক ভাবে ধরা হয়নি বলেও ফরাসিদের দাবি। এসব নিয়ে স্বাভাবিক ভাবেই মাথাব্যথা নেই ব্রিটেনের। সেখানে প্রধানত যৌন দৃশ্য ঘিরেই সমালোচনা তীব্র হয়েছে। কনজার্ভেটিভ দলের এমপি অ্যান্ড্রু ব্রিজেন জানিয়েছেন, 'টিভি-তে এমন রগরগে দৃশ্য দেখতে চাইলে আলাদা প্যাকেজ কিনতে হয়। বিবিসি-র দর্শকরা নাচার। পছন্দ হোক আর না-হোক, তাঁদের এই সমস্ত দৃশ্য বরদাস্ত করতেই হচ্ছে। এ কি বুদ্ধিবেত্তা বিসর্জন দিয়ে বৃহত্তর দর্শক সংখ্যার জন্য বিবিসি-র সাম্প্রতিক নীতির নমুনা? এতো আক্ষরিক অর্থেই অধোঃপাতের সূচনা।

তবে শুধু যৌনতাই নয়, নির্মাতা সংস্থা ক্যানাল প্লাস এই সিরিয়ালে ভায়োলেন্সেও জোর দিয়েছে। পয়লা এপিসোডে অত্যাচারের দৃশ্যে যে ভয়াবহতা ফুটিয়ে তোলা হয়েছে, তাই দেখে দর্শক শিউরে উঠেছেন। দেখা গিয়েছে, কুড়ুলের এক কোপে শত্রুর মুণ্ডচ্ছেদ ও ফিনকি দিয়ে রক্তস্রোতের পুঙ্খানুপুঙ্খ ছবি। পরবর্তী অধ্যায়ে এক বন্দির কব্জি মুচড়ে দিয়ে ছিঁড়ে নেওয়ার দৃশ্যও এই সিরিয়ালে ঠাঁই পেয়েছে।

আসলে আইটিভি-র হিট সিরিয়াল ডাউনটন অ্যাবি-র বাজার কাড়তেই ভার্সাই-এর পরিকল্পনা করে বিবিসি। আগামী মে মাস থেকে সিরিয়ালটি বিবিসি-২ চ্যানেলে সম্প্রচার করা হবে বলে ঘোষণা করা হয়েছে। ব্রিটেনের ফ্যামিলি এডুকেশন ট্রাস্টের ডিরেক্টর নরম্যান ওয়েলস জানিয়েছেন, সরকারি মিডিয়া জনগণের সুবিধার্থে সম্প্রচার করবে, এমনই স্বাভাবিক। কিন্তু যৌনতায় ভরপুর এই সিরিয়াল সম্প্রচার করে কার স্বার্থরক্ষা করা হচ্ছে, প্রশ্ন সেটাই। মিডিয়া সমালোচক স্যাম বার্নেটের মতে, পর্নোগ্রাফি আর ভায়োলেন্সকে সাবেক পোশাকে ঢেকে ফেললেই সংস্কৃতি হয় না।

 


মন্তব্য