kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


'মেয়েটি ১৯ বছরের বড়, আমার কি করা উচিত?'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ মার্চ, ২০১৬ ১৫:১০



'মেয়েটি ১৯ বছরের বড়, আমার কি করা উচিত?'

সম্পর্ক নিয়ে নানা জটিলতায় ভুগছেন? দুজনের মাঝে বিস্তর দূরত্ব? সমস্যা নিরসনে অভিজ্ঞ কারো পরামর্শ খুঁজছেন? আপনাদের জন্য সুপরামর্শ নিয়ে এগিয়ে এসেছেন টেলিভিশন অ্যাঙ্কর, থিয়েটার পারসোনালিটি, কমেডিয়ান, কলামিস্ট এবং লেখক সাইরাস ব্রোচা।

দুজনের মাঝের দূরত্ব ঘোচাতে বা প্রথম ডেটিং থেকে শুরু করে সম্পর্ককে এগিয়ে নিতে সমাধান দিয়েছেন তিনি।

বা যার প্রেমে পড়েছেন তাকে কিভাবে পেতে পারেন অথবা সম্পর্ক ভাঙার বিষয়টি কিভাবে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করা যায় ইত্যাদি বিষয়ে যে কেউ এই মানুষটির কাছে পরামর্শ পেতে পারেন।

একটি প্রশ্ন ছিল বেশ জটিল। অ্যালবার্ট নামে এক তরুণ লিখেছেন, আমি এক বিবাহিত নারীর প্রেমে পড়েছি। সে আমার চেয়ে বয়সে ১৯ বছরের বড়। তার সঙ্গে আমার কি প্রেম করা সাজে?

সাইরাস বলছেন, আপনি এ প্রশ্ন আমাকে কেন করছেন? এ প্রশ্ন তাকেই করবেন যিনি আপনাকে বলেছেন ভালোবাসায় বয়স কোনো বিষয় নয়। এর জবাব একেক জন একেকভাবে দেবেন। আমার স্ত্রী আমার চেয়ে তিন মাসের বড়। আমার মনে হয়, ও আমার চেয়ে ১৯ বছরের বড়। যদি আপনারা একে অপরকে ভালোবেসে থাকেন, তবে ওই মানুষটি কিছুটা হলেও ঠিক বলেছেন যে, ভালোবাসা বয়সের বাঁধন মানে না। সমস্যা হতে পারে যখন আপনার বয়স হবে ৮০ এবং তার বয়স হবে ৯৯ বছর।

আরেকটি প্রশ্ন এমন- একটি ছেলের সঙ্গে আমার সম্পর্ক। বছর পাঁচেক আগে সে আমেরিকা চলে যায়। আমার সাবেক প্রেমিক আমাকে এখনো ভালোবাসে। আমার কি বর্তমান প্রেমিকের অপেক্ষায় থাকা উচিত? নাকি সাবেকের সঙ্গে জড়িয়ে পড়া উচিত?

ব্রোচা বলছেন, আপনি এই মুহূর্তে সম্পর্কে জড়িয়ে আছেন যিনি আমেরিকায় গেছেন তার সঙ্গে। ওই মানুষটির প্রতি আপনি নিশ্চয়ই প্রতিশ্রুতিশীল। এর প্রতি সম্মানবোধ থাকা উচিত। হতে পারে সাবেক প্রেমিকাকে পেয়ে বর্তমানের প্রতি আবেগ কিছুটা হারিয়ে ফেলেছেন। কিন্তু যদি বর্তমান প্রেমিককে ভালোবাসেন তবে অপেক্ষায় থাকা উচিত। যদি দুজনকেই চান, তবে যেকোনো বিপদে পড়তেই পারেন।

আরেক ভারতীয় তরুণ প্রশ্ন রেখেছেন, আমি একটি মেয়েকে ভালোবাসি। সে জম্মুতে থাকে। আমি তাকে ভালোবাসার কথা জানানোর পর সে জানায়, আমার প্রতি তার কোনো ভালোবাসা নেই। কিন্তু মেসেজের মাধ্যমে তার পাগলামি প্রকাশ পেয়েছে। এটাকে কি আমার প্রতি তার ভালোবাসা বলে ধরে নিতে পারি না?

এক্সপার্ট বলছেন, মেয়েটি বলেছে আপনার প্রতি তার কোনো ভালোবাসা নেই। কিন্তু সে আপনাকে 'না' বলে দেয়নি। আবার আপনাকে মেসেজ করছে। এর অর্থ তার মনে আপনার প্রতি কিছু অনুভূতি তো কাজ করছেই। কাজেই আপনি এই 'খেলায়' এখনো অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন। কাজেই বুদ্ধিমানের মতো কাজ করে যান। মেসেজ পাঠানো দারুণ এক লক্ষণ। তিনি আপনার সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করতে চান। কাজেই আপনার জন্যে হয়তো সুদিন অপেক্ষা করছে।
সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

 


মন্তব্য