kalerkantho


ছয় উপায়ে পাবেন টেনশন থেকে মুক্তি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৯:০৫



ছয় উপায়ে পাবেন টেনশন থেকে মুক্তি

প্রতীকী ছবি

জীবনের গতির কারণে এখন মানুষের টেনশনও বেড়ে গেছে। চারিদিকে দুর্ভাবনার অনেক উপাদান ছড়িয়ে আছে আমাদের দেশে। পথে-ঘাটে বেপরোয়া গাড়ি; অফিসে কাজের চাপ; বাসায় নিজের এবং কাছের মানুষদের শরীর-স্বাস্থ্য নিয়ে উৎকণ্ঠা...। আর এর হাত ধরেই শরীরে বাসা বাঁধে ডায়াবিটিস, উচ্চ রক্তচাপ জাতীয় অসুখ। তাই অসুখের হাত থেকে বাঁচতে গেলে টেনশন থেকে মুক্ত থাকতেই হবে।

মনোবিদদের মতে, বেশ কিছু নিয়মে টেনশন থেকে সহজেই মুক্ত থাকা যায়। কয়েকটি সহজ উপায় অবল্মবন করলেই টেনশন কাটিয়ে সুস্থ থাকতে পারবেন। জেনে নিন সেসব নিয়ম:

মেডিটেশন: প্রতিদিন ধ্যান বা মেডিটেশনের অভ্যাস আপনাকে অনেকটাই টেনশনমুক্ত রাখার চেষ্টা করবে। শ্বাসের আদানপ্রদানকে নিয়ন্ত্রণে রেখে নানা ঘটনায় মনকে শান্ত থাকার পাঠ শেখায়।

ঘুম: অনেকেরই প্রবল টেনশনের সময় ঘুম পায়। কেউ বা দুচোখের পাতা এক করতে পারেন না। কিন্তু যদি নিরিবিলিতে ঘুমানোর অভ্যাস রপ্ত করতে পারেন, তা হলে তার মতো ভাল উপায় আর হতেই পারে না। টেনশন গ্রাস করছে দেখলে বা অনেকটা মানসিক চাপ পড়ে গেলে সময় বার করে একটু ঘুমিয়ে নিন।

গান: গান শুনতে ভালবাসলে দিনের মধ্যে কিছুটা সময় প্রিয় গায়ক ও তার গান শুনে কাটান। মনের উপর চাপ খুব সহজেই দূর করে  দিতে পারে গান।

খাবার: খাবারের মেন্যুতে রাখুন স্বাস্থ্যকর মনোস্যাচুরেটেড ফ্যাট ও পটাশিয়াম জাতীয় খাবার। অ্যাভোকাডো জাতীয় ফল রাখুন ডায়েটে। টেনশন কমিয়ে ব্লাড প্রেশারকে নিয়ন্ত্রমে রাখে তা।

সঙ্গ: খুব টেনশনের সময় এমন কোনো মানুষের সঙ্গ নিন, যিনি কাছে থাকলে অনেকটা চাপমুক্ত থাকতে পারেন কিংবা এমন কেউ যাকে নিজের সব সমস্যার কথা বলতে পারেন। তেমন প্রিয় কোনো মানুষের সঙ্গ অনেকটাই মনের চাপকে কমিয়ে দেয় বলে মত মনোবিদদের।

শখ: গল্পের বই পড়া হোক বা পছন্দের কোনো শখ, টেনশন কমাতে শরণ নিন তাদের। মনকে যত অন্য দিকে রাখবেন, ততই টেনশন কমবে। যদি পার্লারে গিয়ে সময় কাটাতে বা শপিং করতে ভালবাসেন, তা হলে তাই করুন। এতেও টেনশনের চাপ কমে যাবে।



মন্তব্য