kalerkantho


চুইংগাম খারাপও

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০৯:৪৫



চুইংগাম খারাপও

ছবি অনলাইন

চুইংগাম চিবানো মন্দ নয়। মুখের ব্যায়াম হয়। গবেষণায় দেখা গেছে, এই গাম মেজাজ ভালো করে দেয় এবং মানসিক চাপও দূর করে। কিন্তু এটাও প্রমাণিত যে এই চুইংগাম বেশ কয়েক ধরনের স্বাস্থ্যগত সমস্যার জন্যও দায়ী। এখানে এসংক্রান্ত কিছু তথ্য তুলে ধরা হলো—

চোয়ালের সমস্যা

যারা টেম্পোরোম্যান্ডিবুলার জয়েন্ট ডিসফাংশন (টিএমজে) সমস্যায় ভুগছে, তাদের জন্য চুইংগাম চিবানো মারাত্মক ক্ষতিকর হয়ে ওঠে। আবার এ সমস্যা না থাকলেও অতিরিক্ত গাম চিবালে চোয়ালের নানা স্থানে ব্যথা হয়।

ক্ষতিকর রাসায়নিক

কৃত্রিম চিনি যে কতটা ক্ষতিকর, তা সবাই জানে। এটি বিভিন্ন স্বাস্থ্যগত ঝুঁকির অন্যতম কারণ হয়ে ওঠে। চুইংগামের মিষ্টি স্বাদ দিতে ব্যবহৃত হয় কৃত্রিম মিষ্টি উপাদান। অনেক সময় দেওয়া হয় ‘অ্যাসপারটেম’ নামের উপাদান। এটা মস্তিষ্কের টিউমার, ক্যান্সার এবং জন্মগত ত্রুটির জন্য দায়ী হতে পারে।

মাথা ব্যথা

বিশেষজ্ঞদের মতে, একটা ছোট গাম চিবাতে মুখের ভিন্ন ভিন্ন আট ধরনের পেশির ব্যবহার ঘটে। কাজেই এটা নিদারুণ চাপ সৃষ্টি করে মুখে। ফলে প্রায় সময়ই মাথা ব্যথার কারণ হয়।

বিপাকক্রিয়ার অন্তরায়

খেয়াল করে দেখবেন, চুইংগাম খাওয়ার সময় লালা বেড়ে যায়। অর্থাৎ অস্বাভাবিকভাবে লালার উৎপাদন ঘটে। এটা পরোক্ষভাবে দেহের বিপাকক্রিয়াকে বিরূপভাবে প্রভাবিত করে।

পেটে পীড়াদায়ক অনুভূতি

চিবানোর পদ্ধতির আরো গভীরে গেলে দেখবেন, কিছু ক্রমাগত চিবাতে থাকলে বারবার ঢোক গেলা হয়। এতে অতিরিক্ত বায়ুর প্রবেশ করে পেটে। ফলে পেটের ভেতর বাড়তি ও এলোমেলো চাপের সৃষ্টি হয়। এতে ব্যথা হতে পারে।

-- টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে সাকিব সিকান্দার



মন্তব্য