kalerkantho


স্বাস্থ্যকর পেঁপের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৯ জুলাই, ২০১৮ ১৭:০৫



স্বাস্থ্যকর পেঁপের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

দারুণ এক ফল পেঁপে। এ ফলের জুস খুবই জনপ্রিয়। এমনিতেও খেতে অসাধারণ। কাঁচা খেতেও সুস্বাদু।  এতে ক্যালোরি অনেক কম। স্বাস্থ্যগত গুণের শেষ নেই। গবেষণায় প্রমাণ মিলেছে, হজমে সহায়ক। অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান রয়েছে। প্রায় পুরোটুকুই ভক্ষণযোগ্য। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে। বিশেষ করে ডেঙ্গু জ্বর প্রশমনে এর উপকারিতার কথা অনেকেই জানেন না। তবে এর কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে বলে জানান বিশেষজ্ঞরা। অবশ্য যদি বেশি বেশি খাওয়া হয়, তাহলে বিপদ হতে পারে। এখানে জেনে নিন এমনই কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কথা। 

গর্ভবতী নারীর ক্ষেত্রে 
অধিকাংশ স্বাস্থ্যবিদরা গর্ভবতী নারীদের পেঁপের বিচি খেতে নিষেধ করেন। এর কষ বা খোসাও ভ্রূণের জন্যে ক্ষতিকর হয়ে ওঠে। এখনো পাকেনি কিংবা কাঁচাই রয়েছে এমন পেঁপেতে উচ্চমাত্রার ক্ষারীয় উপাদান থাকে। এ ফলে রয়েছে পাপেইন নামের এক উপাদান। এটা দেহের এমন কিছু মেমব্রেনকে ক্ষতিগ্রস্ত করে যা কিনা ভ্রূণ গঠনে সহায়ক হয়ে ওঠে। 

হজমে সমস্যা 
পেঁপেতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার রয়েছে। কাজেই যাদের কোষ্ঠকাঠিন্য রয়েছে তারা উপকৃত হবেন। কিন্তু অতিমাত্রায় খেলে হজমে সমস্যা হতে পারে। এ ফলের খোসায় আছে লেটেক্স। এটা পাকস্থলীতে অস্বস্তিকর অবস্থার সৃষ্টি করতে পারে। জ্বালাপোড়াও দেখা দিতে পারে। আবার পেঁপেতে যে ফাইবার থাকে তা ডায়রিয়া ঘটায় বলে জানান বিশেষজ্ঞরা। কাজেই বুঝে শুনে পরিমিত খেতে হবে। 

ওষুধ-পথ্য খেতে থাকলে...
ইউএস ন্যাশনাল লাইব্রেরি অব মেডিসিনের এক গবেষণায় বলা হয়, রক্তকে পাতলা করে এমন ওষুধের সঙ্গে প্রতিক্রিয়াশীল হয়ে ওঠে পেঁপে। ফলে যারা এসব ওষুধ গ্রহণের পাশাপাশি বেশি পেঁপে খান, তাদের দেহের আঘাত সহজে সারে না। 

রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা 
গাঁজন প্রক্রিয়ায় রেখে দেয়া পেঁপে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা উল্লেখযোগ্য হারে কমিয়ে আনে। কাজেই যাদের ডায়াবেটিস রয়েছে তাদের জন্যে বিষয়টা বিপজ্জনক হয়ে ওঠে। তাই যাদের ডায়াবেটিস রয়েছে এবং ওষুধ খাচ্ছেন তারা পেঁপে খাওয়ার আগে বিশেষজ্ঞের সঙ্গে আলাপ করে নেবেন। 

অ্যালার্জি  
পেঁপের পাপাইন উপাদানটি এবং ফুলের পরাগরেণু নানা অ্যালার্জির জন্যে দায়ী থাকে। মাথাব্যথা, র‍্যাশ ওঠা, চুলকানি এবং মাথা ঘোরার মতো সমস্যা হয়। 
সূত্র: এনডিটিভি 



মন্তব্য