kalerkantho


শিশুর ন্যাপি পাল্টানোর আগেও অনুমতি নিতে হয় : বিশেষজ্ঞ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ মে, ২০১৮ ১৩:০২



শিশুর ন্যাপি পাল্টানোর আগেও অনুমতি নিতে হয় : বিশেষজ্ঞ

ছবি অনলাইন

শিশুদের তাদের প্রাইভেসি ও অধিকার সম্পর্কে সচেতন করে তুলতে হয় ছোটবেলা থেকেই। আর এ কারণে ঠিক কী কী পদক্ষেপ নেওয়া উচিত তার কিছু বিষয় জানিয়েছেন এক বিশেষজ্ঞ। তিনি বলেন এমনকি খুব ছোট শিশুর ন্যাপি পাল্টানোর আগেও অনুমতি নেওয়া উচিত বাবা-মায়ের। যদিও দিয়ানে কার্সন নামে সে বিশেষজ্ঞের মতামত জেনে বহু বাবা-মা সমালোচনায় মুখর হয়েছেন। অনেকেই তাকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হাস্যরস করছেন।

এবিসি নিউজের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে ‘সেক্সুয়ালিটি এক্সপার্ট’ দিয়ানা বলেন, খুব ছোট শিশু কিংবা নবজাতককেও ন্যাপি পাল্টানো কিংবা পোশাক খোলার আগে অনুমতি নিতে হবে। সে সময় বলা যেতে পারে, ‘আমি তোমার ন্যাপি পাল্টাতে চাচ্ছি, ঠিক আছে?’

তিনি বলেন, ‘আপনার শিশুর সাড়া পাওয়ার জন্য অপেক্ষা করতে হবে। আপনার দেহের ভাষা ও চক্ষুসংযোগ অনেক অর্থই বহন করবে, যা শিশুকে শেখাবে তার অনুমতি অনেক বড় বিষয়।’

তবে তিনি এও স্বীকার করেন যে, সব শিশু এ অনুমতির বিষয়টি ধরতে পারবে না। তারা হ্যাঁ বা না কিছুই বলবে না। তবে এটি শিশুকে অনেক কিছু শেখাবে।

দিয়ানা এ প্রসঙ্গে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের অবতারণা করেন। তিনি বলেন, ‘ছয় বছর বয়স হওয়ার আগেই প্রতি ১২টি মেয়ে শিশুর মধ্যে একজন যৌন নিপীড়নের শিকার হয়। আর এর পেছনে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই পরিবারের সদস্য বা খুব বিশ্বস্ত কোনো ব্যক্তির হাত থাকে ‘

এক্ষেত্রে শিশুর অনুমতি নেওয়ার অভ্যাস গড়লে সে সহজেই বিষয়গুলোর পার্থক্য করতে পারবে এবং প্রয়োজনে বাবা-মায়ের সহায়তা নিতে পারবে।



মন্তব্য