kalerkantho


ধূমপানবিরোধী যুদ্ধের সঙ্গী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ এপ্রিল, ২০১৮ ০৯:২১



ধূমপানবিরোধী যুদ্ধের সঙ্গী

ছবি অনলাইন

পর্যাপ্ত পানি

যারা দীর্ঘদিন ধরে ধূমপান করে, তাদের শরীরে একেবারে ভেতর পর্যন্ত নিকোটিন চলে যায়। আর এ কারণেই ধূমপান ছাড়তে খুব কষ্ট হয়। এ ক্ষেত্রে পানি দারুণ কাজ করে। কারণ শরীরে টক্সিন হিসেবে জমতে থাকা নিকোটিনকে ধুয়ে বের করে দিতে পানির বিকল্প নেই। শুধু তাই নয়, তামাক এবং নিকোটিনের নানা ক্ষতিকর প্রভাব থেকে শরীরকে বাঁচাতেও পানি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

আঙুরের রস

নিকোটিনের কারণে শরীরের ভেতরে জমতে থাকা টক্সিন বেরিয়ে যেতে শুরু করলে একদিকে যেমন ফুসফুসের কার্যক্ষমতা বাড়ে, তেমনি সিগারেট খাওয়ার ইচ্ছাও কমতে শুরু করে। আর এই কাজে আপনাকে সাহায্য করতে পারে আঙুরের রস। কারণ এর একাধিক উপাদান এবং স্বাস্থ্যকর এসিড শরীরকে ডিটক্সিফাই করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ফলে রোগমুক্তির পথে শরীর আরো কয়েক ধাপ এগিয়ে যায়।

আদা

আপনি কি ধূমপান ছাড়তে চান? তাহলে আজ থেকেই আদার সাহায্য নিন। এর কিছু উপাদান নানাভাবে সিগারেট খাওয়ার ইচ্ছাকে দমিয়ে রাখে। সেই সঙ্গে ধূমপান ছাড়ার কারণে যেসব ‘উইথড্রল সিম্পটম’ দেখা দেয়, সেগুলো নিয়ন্ত্রণে রাখতেও বিশেষ ভূমিকা নেয়।

মধু

মধুতে থাকা কিছু ভিটামিন, এনজাইম ও প্রোটিন শরীর থেকে নিকোটিন বের করে দেওয়ার পাশাপাশি সিগারেট খাওয়ার ইচ্ছাকেও নিয়ন্ত্রণে রাখে।

মরিচের গুঁড়া

একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, নানাভাবে যদি নিয়মিত মরিচের গুঁড়া খাওয়া যায়, তাহলে ফুসফুসের সক্ষমতা বাড়তে শুরু করে। সেই সঙ্গে ধূমপানের কারণে ফুসফুসের যে ক্ষতি হয়, তাও ধীরে ধীরে কমতে থাকে।

চিটশিট অবলম্বনে ইমরোজ বিন মশিউর


মন্তব্য