kalerkantho


সবচেয়ে বেশি ক্যালোরি পোড়ে যে তিন ব্যায়ামে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ মার্চ, ২০১৮ ১৫:৫৩



সবচেয়ে বেশি ক্যালোরি পোড়ে যে তিন ব্যায়ামে

ক্যালোরি পোড়ানোর দৌড়ে সব স্বাস্থ্য সচেতনরাই সামিল হয়ে থাকেন। ঘাম ঝরানো ব্যায়াম না বিশেষ খাদ্য তালিকা বন্ধু হয়ে ওঠে। কিন্তু সব ব্যায়ামে আশানুরূপ ক্যালোরি পোড়ে না। অধিক হারে ক্যালোরি খোয়ানোর জন্যে বিশেষ ব্যায়াম বেছে নিতে হবে। আর এ কাজে তিনটি ব্যায়ামের কোনো জুড়ি নেই বলেই মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। এখানে জেনে নিন এদের সম্পর্কে। 

বার্পিস 
দেহের চর্বি কমানোর জন্যে বার্পিস দারুণ এক ব্যায়াম। আমেরিকান কলেজ অব স্পোর্টস মেডিসিন এক গবেষণায় জানায়, প্রতিটি বার্পিতে ১৮০ পাউন্ড ওজনের কোনো ব্যক্তি ১৫ ক্যালোরি পর্যন্ত ঝরাতে পারেন। এই পরিমাণ বাড়তেই থাকবে যখন বার্পির সংখ্যা বাড়তে থাকবে। তবে ৬০ সেকেন্ডের মধ্যে ১০টি বার্পি দেওয়ার চেষ্টা করবেন। বার্পির জন্যে সোজা হয়ে মাটিতে দাঁড়ান। কাঁধ আর দুই পা একই রেখা বরাবর থাকবে। এবার ডনবৈঠকের মতো বসতে হবে। তবে আরেকটু নিচে হয়ে বসে দেহের সামনে দুই হাতের তালু মেঝেতে ঠেকাতে হবে। এবার এই দুই হাতের ওপর ভর দিয়ে দুই পা পেছনে ঠেলে দিন। এই অবস্থায় আপনার পজিশন হবে ঠিক বুকডন দেওয়ার মতো। গোটা প্রক্রিয়া চলাকালে আপনার বুক মেঝেতে স্পর্শ করবে না। এবার যে অবস্থা থেকে দুই পা পেছনে ঠেলে দিয়েছিলেন, বিপরীতভাবে আগের অবস্থানে বসে পড়ুন এবং আবার দাঁড়িয়ে যান। 

দড়ি লাফ 
অতি পরিচিত সোজা একটি কাজ। হয়তো জানেন না, দড়ি লাফ কিন্তু দারুণ ক্যালোরি পোড়ায়। মধ্যম গতির দড়ি লাফে অনেক ক্যালোরি যাবে। একটা সেশন এক মিনিট ধরে চলতে পারে। মধ্যম তীব্র মাত্রার সেশনে ১৩ ক্যালোরি যাবে। মধ্যম মানের সেশনটি হলো প্রতি মিনিটে ১০০টি লাফ। 

সাঁতার 
এটা পৃথিবীর সেরা ব্যায়ামগুলোর একটি। কারণ, সাঁতারের সময় দেহের প্রতিটি অঙ্গের ব্যায়াম হয়। দুই হাত বেশ কিছু পেশিসহ নড়াচড়া করে। দুই পা ছুঁড়তে হয়। দেহের বাকি অংশটুকুও ব্যস্ত থাকে। এটা উচ্চমাত্রার ক্যালোরি পোড়ানো কার্ডিও ব্যায়াম। কাজেই অধিক হারে ক্যালোরি পোড়ানোর ক্ষেত্রে সাঁতার অতুলনীয়। তবে এর রকমফের আছে। একটা ব্রেস স্ট্রোকের পর বাটারফ্লাই স্ট্রোক অনেকে বেশি ক্যালোরি পোড়াবে। আবার কোথায় সাঁতার কাটছেন তাও অনেক গুরুত্বপূর্ণ। নদীতে সাঁতার কাটলে অনেক বেশি ক্যালোরি খরচ করতে হবে। আর পুকুরে কাটলে নদীর তুলনায় কম ক্যালোরি যাবে। 
সূত্র : ডক্টর 



মন্তব্য