kalerkantho


চীনা লবণে ধরা পড়ল বিষাক্ত পদার্থ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৮ ২২:৪৪



চীনা লবণে ধরা পড়ল বিষাক্ত পদার্থ

পাকিস্তানের পাঞ্জাব খাদ্য কর্তৃপক্ষ (এফপিএ) সোমবার আজিনোমোটো নামের একটি খাদ্যকে নিষিদ্ধ করেছে। এটি সাধারণত চীনা লবণ হিসেবে পরিচিত। পাঞ্জাব খাদ্য কর্তৃপক্ষ গবেষণায় দেখতে পেয়েছে লবণটি স্বাস্থ্যের জন্য বেশ ক্ষতিকর।

গবেষণায় দেখা গেছে, চীনা ওই লবণে মনোসোডিয়াম গ্লুটামেট (এমএসজি) রয়েছে। যা থেকে মাথা ব্যথা, অবসাদ বা ক্লান্তি, হৃদপিণ্ডের ধুকপুকানি, বমিভাব এবং বমি, অতিরিক্ত ঘাম ঝরা, মুখ লাল হয়ে যাওয়া এবং মুখের অসাড়তার মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে।

এ থেকে হাইপারটেনশনও হতে পারে। আর গর্ভবতী নারীদের জন্যও এটি বেশ ক্ষতিকর।

এফপিএ বিজ্ঞানীদের প্যানেল সব ধরনের খাবারের দোকান, হিমায়িত খাদ্য, এবং অন্য সব ধরনের খাদ্যপণ্যে আজিনোমোটোর ব্যবহার নিষিদ্ধ করার পরামর্শ দিয়েছেন।

এরপর কর্তৃপক্ষ আগামী ৩১ মার্চের মধ্যেই চীনা লবণের ব্যবহার বন্ধ করার শেষ সীমা বেধে দেন।

রাসায়নিকভাবে এই লবণ অ্যামাইনো এসিড পরিবারের সদস্য। যা গ্লুটামিক এসিড (গ্লুটামেট) নামেও পরিচিত।

এ থেকে উচ্চ রক্তচাপ, অটিজম, হরমোনগত ভারসাম্যহীনতা, মৃগীরোগ, খাদ্য এলার্জি, শ্বাসকষ্ট, পিত্তরস উৎপাদন কমে যাওয়া, ক্যান্সার এবং নারীদের গর্ভধারণে সমস্যার মতো নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে।

বেশ কিছু গবেষণা মতে, এমএসজি মস্তিষ্ককে অতিরিক্ত উদ্দীপিত করে তোলে। যার ফলে কোনো খাদ্য বেশি সুস্বাদু মনে হয়। এবং একই খাদ্য বেশি বেশি খেতে ইচ্ছা হয়। এটিকে একটি ম্যাজিক উপাদান হিসেবে গণ্য করা হয়। আর খাদ্য কম্পানিগুলো তাদের পণ্যের স্বাদ বাড়ানোর জন্য এটি ব্যবহার করেন।


মন্তব্য