kalerkantho


দিবানিদ্রার উপযুক্ত সময় কোনটি?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ আগস্ট, ২০১৭ ২২:০২



দিবানিদ্রার উপযুক্ত সময় কোনটি?

ফাইল ফটো

দিনের বেলা ঘুমে চোখ ঢুলুঢুলু হয়ে যায়? ক্লান্ত হয়ে পড়েন? সব সমস্যা দূর হবে আপনি যদি কিছুক্ষণ ঘুমিয়ে নিতে পারেন। এক্ষেত্রে আধ ঘণ্টা ঘুমালেই আপনি হয়ে পড়বেন তরতাজা।

কিন্তু কোন সময়ে ঘুমাবেন? এ প্রসঙ্গে গবেষকরা বলছেন দুপুরের ঘুমই সবচেয়ে ভালো। আর সবচেয়ে উপযুক্ত সময় হলো দুপুর ৩টা।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দিনের বেলার সামান্য ঘুম দেহের ক্লান্তি যেমন দূর করতে পারে, তেমনি পারে মস্তিষ্ককে ঠাণ্ডা রাখতে। আর এর ফলে নতুন নতুন স্মৃতি ধরে রাখার শক্তিও বেড়ে যায় মস্তিষ্কের। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার এক সেমিনারে গবেষণালব্ধ এ তথ্য জানানো হয়।

স্বেচ্ছাসেবী বেশ কিছু মানুষের ওপর ঘুম বিষয়ে গবেষণা চালিয়ে এ সিদ্ধান্তে এসেছেন তারা। দিনের বেলায় তাদের একদল দেড় ঘণ্টা ঘুমিয়েছে, আরেক দল ওই সময় ছিল জেগে। দেখা গেছে, দিনের বেলায় যারা ঘুমিয়েছিল তাদের মস্তিষ্ক না-ঘুমানোদের থেকে অনেক বেশি স্মৃতিশক্তি ধরে রাখতে সক্ষম।

মস্তিষ্কে স্মৃতি ধরে রাখার শক্তি বৃদ্ধির জন্য দিবানিদ্রা খুবই উপকারী।

কেননা, দিবানিদ্রার ফলে মস্তিষ্কের কিছু জায়গা ফাঁকা হয় এবং সেখানেই নতুন স্মৃতি ধরে। মস্তিষ্কের দুই স্তরেই ঘুম হয়ে থাকে। একটি হলো গভীর ঘুম, অন্যটি স্বপ্নময় ঘুম। এ ছাড়া আরেক ধরনের ঘুম আছে, যা ঘুম ও জাগরণের মাঝামাঝি। দিবানিদ্রার সময় মস্তিষ্ক অস্থায়ী অনেক স্মৃতি মুছে ফেলে নতুন জায়গা তৈরি করে। ফলে মস্তিষ্কের স্মৃতিধারণ ক্ষমতাও বৃদ্ধি পায়।

সূত্র : ইন্ডিপেনডেন্ট


মন্তব্য